ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ৫ উইকেটে জিতেছে টাইগাররা

নিউজ ডেস্কঃ  রবিবার ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ৫ উইকেটে জিতেছে টাইগাররা। এতে সিরিজে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল মাশরাফি বাহিনী। চলমান সফরে ক্যারিবীয়দের টেস্ট সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ করে বাংলাদেশ।

মিরপুর স্টেডিয়ামে টস জিতে শুরুতে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১৯৫ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জয়ের জন্য ১৯৬ রানের সহজ লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে মাঠে নেমেও ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। দলীয় ৩৭ রানে তামিম ইকবাল (১২) আউট হওয়ার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় মাশরাফি বাহিনী। তবে রান তোলার গড় ভালো থাকায় ম্যাচে জয় পেতে কোনো সমস্যা হয়নি। শেষ পর্যন্ত ৩৫.১ ওভারে ৫ উইকেট হাতে রেখে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় তারা।

তামিমের পর দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ইমরুল কায়েস। তিনি দুই অঙ্ক ছূঁতে পারেননি। দলীয় ৮৯ রানে আউট হন লিটন দাস; তিনি করেন ৪১ রান। এরপর দলীয় ১৪৬ রানে সাকিব আউট হন ৩০ রান করে। জয় থেকে ২১ রান দূরে থাকতে সবশেষ আউট হন সৌম্য সরকার (১৯)।

বাকি পথটা মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে সহজেই পাড়ি দেন মুশফিক। মুশফিক ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৫ ও মাহমুদউল্লাহ ১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে রোস্টন চেজ নেন দুটি উইকেট। এর আগে রবিবার দুপুরে টস জিতে শুরুতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শুরুতে ব্যাট করে তারা করে ৯ উইকেটে ১৯৫ রান। ম্যাচের শুরু থেকেই দাপুটে অবস্থান ছিল বাংলাদেশের বোলাররা। দলীয় ২৫ রানে কাইরন পাওয়েল আউট হন সাকিব আল হাসান এর বলে।

এরপর ড্যারেন ব্রাভো ও শাই হোপের উইকেট নিয়ে জোড়া আঘাত হানেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলীয় ৯৩ রানে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে শিমরন হেটমায়েরকে সাজঘরে ফেরান মেহেদি হাসান মিরাজ। পরে মাশরাফি ফেরান রোভম্যান পাওয়েলকে। এরপর রুবেলের বলে আউট হন মারলন স্যামুয়েলস। আর শেষ তিন ব্যাটসম্যান রোস্টন চেজ, কিমো পল ও দেবেন্দ্র বিষুর উইকেট নেন মুস্তাফিজ।

ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের শাই হোপ সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন। এছাড়া কিমো পল ৩৬, রোস্টন চেজ ৩২ ও মারলন স্যামুয়েলস ২৫ রান করে করেছেন। ৩০ রানের বিনিময়ে মাশরাফি ও ৩৫ রান খরচায় মুস্তাফিজ তিনটি করে উইকেট নেন।

এর আগে দুটি টেস্টেই বাংলাদেশ জয় পেয়েছে তিন দিনের মধ্যে। আবার ওয়ানডের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশই গুঁড়িয়ে দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।