গ্রীন ইউনিভার্সিটিতে অনুষ্ঠিত হলো ইয়ুথ সিম্পোজিয়াম

সফল উদ্যোক্তার হওয়ার কোন জাদু মন্ত্র নেই আবার কোন শর্টকাট রাস্তাও নেই। উদ্যোক্তারা কখনও ব্যর্থ হন না। কেননা তারা অধ্যবসায়ী। আর গত ৬ই ডিসেম্বর সেইসব অধ্যবসায়ী, তরুণ, শিক্ষার্থী ও ভবিষ্যত উদ্যোক্তাদের সাথে বর্তমান সফল উদ্যোক্তা, পরামর্শ ও প্রশিক্ষদের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গ্রীন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে। ইয়ুথ স্কুল ফর স্যোসাল এন্ট্রাপ্রেনারস” ও “টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট” এর যৌথ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ ও সাবেক গভর্নর, জনাব ড. আতিউর রহমান। দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থায় কৃষি নিয়ে তরুণ উদ্যোক্তাদের ভাবনা আরও অনেক কিছু আছে বলে তিনি মনে করেন।

“গ্রীন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ”-এ অনুষ্ঠিত এই আয়োজনের আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বোল্ড এর সহপ্রতিষ্ঠাতা ও সেক্রেটারী জেনারেল, জনাব মঈনউদ্দিন চৌধুরী। দেশের সকল শিক্ষার্থীদেরকে বিশেষত: যারা উদ্যোক্তা হতে চান তাদেরকে ওয়াইএসএসই এর মতো ছাউনির তলে এসে সহযোগিতামূলক পরিবেশে এগিয়ে যেতে পরামর্শ দেন। এছাড়াও আলোচক হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর স্কুল অবস বিজনেস-এর প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক, জনাব এস.এম.আরিফুজ্জামান, তান-এর স্বত্ত্বাধিকারী, তানিয়া ওয়াহাব,। দেশের নারী উদ্যোক্তাদের বেড়ে উঠার সংগ্রামের গল্প ও সুযোগের ক্ষেত্রগুলো তুলে ধরেন তারা সকলের সামনে। নিজের স্বভাবসূলভ প্রেরণামূলক বক্তব্য দিয়ে অনুষ্ঠানটিকে আরো প্রাণবন্ত করেন প্রীত রেজা প্রোডাকশনের ডিরেক্টর, প্রীত রেজা। উদ্যোক্তা জগতের নতুন মুখগুলোকে সাথে নিয়ে বেশ উপভোগ্য একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয় ওয়াই.এস.এস.ই-এর তত্তাবধায়নে। একজন অসাধারণ উদ্যোক্তার সাধারন কার্যাবলি, নতুন আইডিয়া নিয়ে কাজ করার কৌশল নির্ধারণ, নতুন বাজারে প্রবেশের পূর্বে করণীয়, সফল উদ্যোক্তা হওয়ার পথে বাধাঁগুলো ইত্যাদি বিষয়ে আলোকপাত করেন স্বনামধন্য আলোচকগণ। আলোচনার পাশাপাশি অংশগ্রহণকারীদেরকে উৎসাহ ও উদ্দীপনা দেওয়ার জন্য বিশেষ উপস্থিত বক্তৃতার আয়োজন করা হয়েছে। আর ইভেন্ট পার্টনার হিসেবে ছিল “সিমুড ইভেন্ট”। একই সাথে ডিজিটাল মার্কেটিং পার্টনার হিসেবে সমর্থন দিয়েছে “জিনি ৩৬০ ডিজিটাল স্যলুশন”। এই বণার্ঢ্য আয়োজনের কৌশলগত অংশীদার রকমারি ডট কম।

প্রাইম এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমেই এবছর বাংলাদেশ ইয়ুথ সিম্পোজিয়ামের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় এটি ইতোমধ্যেই ইন্ডিপেন্ডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের সামাজিক উদ্যোক্তা আন্দোলনকে বেগবান করতে ওয়াই.এস.এস.ই-এর এই উদ্যোগ সামনে অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে ইয়ুথ স্কুল ফর স্যোসাল এন্ট্রাপ্রেনারস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, শেখ মোহাম্মদ ইউসুফ হোসেন।