প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি বিএনপিকে ভোট দেবেন না

সুমন দত্ত: জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি বিএনপিকে ভোট না দেয়ার আহবান জানিয়েছে জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন নামের একটি সংগঠন। বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে প্রতিক্রিয়াশীলতা রাজনীতি ও আসন্ন নির্বাচন শীর্ষক সংলাপে এই আহবান জানান তারা।

এদিন সংলাপে অংশ নেয় বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড খলিকুজ্জামান আহমদ, ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. আবদুল মান্নান, যুদ্ধাপরাধ বিশেষজ্ঞ ডা. এম এ হাসান।, বাংলা একাডেমীর ডিজি ড. শামসুজ্জামান খান, সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, দৈনিক সমকালের সহযোগী সম্পাদক অজয় দাস গুপ্ত, সাংবাদিক ও রাজনীতি বিশ্লেষক সুভাষ সিংহ রায়।

ড. এম এ হাসান, প্রতিক্রিয়াশীলতা রাজনীতি কি তার ব্যাখ্যা দেন। মানুষের মৌলিক মূল্যবোধ নষ্ট করে দেয় এ ধরনের রাজনীতি। এই রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করে পাওয়ার পলিটিক্সি। আমিত্ব এই রাজনীতির লক্ষণ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হিটলারের মধ্যে এই রাজনীতি দেখা গেছে। এই রাজনীতি গোটা মানব সভ্যতাকে ধ্বংস করে দেয়। এই দেশের মানুষ প্রতিক্রিয়াশীলদের পাল্লায় পড়ে নিজেদের চেঙ্গিস খানের, আইয়ুব খানের উত্তরসূরি মনে করতে থাকে।

ড. খলিকুজ্জামন বলেন, আমাদের সংবিধান যে চার নীতির ওপর প্রতিষ্ঠিত সেটা মনে প্রাণে ধারণ করতে হবে। পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা পত্রের কথা যেন আমরা ভুলে না যাই। আজ আমরা দেখছি মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি ঘাপটি মেরে বসে আছে। সুযোগ পেলেই তারা আমাদের ওপর ছোবল মারবে। তাদেরকে আর সেই সুযোগ যাতে না দেয়া হয় সেজন্য আমাদের সকলকে সজাগ থাকতে হবে।

সুভাষ সিংহ রায় বলেন, লর্ড কার্লাইলের অফিস এখন ড. কামাল হোসেন এন্ড অ্যাসোসিয়াটে। আমরা ভুল করে অনেক লোককে দলে জায়গা দেই। কোনো বাছ বিচার করি না। তার খেসারত আমাদেরকে দিতে হয়। এখন থেকে এ বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। তা না হলে এসব লোক পরে আমাদের দিয়ে মার্কেটিং করার সুযোগ পায়।