কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই স্কুলের গাছ কেটে বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের স্বল্প পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দিলরুবা ইয়াসমিন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করে দিয়েছেন। গত ২৩ নভেম্বর প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের একটি শিশু গাছ ও একটি নারিকেল গাছ কেটে ফেলেন। ঘটনার এক সপ্তাহ পর বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় তোলাপাড় শুরু হয়।
স্থানীয় ও বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, স্বল্প পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশে একটি শিশু গাছ এবং অফিস কক্ষের সামনে ছিল একটি নারিকেল গাছ। গত ২৩ নভেম্বর বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোস্তাকিম মিয়ার সহযোগিতায় গাছ দু’টি কেটে বিক্রি করে দেন প্রধান শিক্ষক দিলরুবা ইয়াসমিন। গাছ কাটার বিষয়টি এক সপ্তাহ চাপা থাকলেও গত বৃহস্পতিবার রাতে বিষয়টি উপজেলা শহরে জানাজানি হলে তোলপাড় শুরু হয়।
বোকাইনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার গাজিবুর রহমান বলেন, গাছ কাটার সময় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোস্তাকিম সহ স্কুলের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিল। গাছ কাটার পর রামগোপালপুরের আব্দুল হাই ব্যাপারীকে গাছের ডাল-পালা নিতে দেখেছি।
ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোস্তাকিম মিয়া বলেন, স্কুলের মৃত শিশু গাছটিতে বৈদ্যুতিক তার জড়ানো ছিলো। যেকোনো সময় ভেঙে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে এমন আশঙ্কায় গাছটা কাটা হয়েছে।
প্রধান শিক্ষক দিলরুবা ইয়াসমিন বলেন, বৈদ্যুতিক তার জড়ানো স্কুলের মৃত একটি শিশু গাছ যে কোনো সময় ভেঙে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে এমন আশঙ্কায় কাটা হয়েছে। তবে গাছ কাটার জন্য কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি নেয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি মৌখিক অনুমতির নেয়ার কথা বলেন।
ইউএনও ফারহানা করিম বলেন, গাছ কাটার একটি অভিযোগ আছে। তবে এটা কোন বিদ্যালয়ের তা এ মূহুর্তে বলা যাচ্ছে না। বিষয়টি দেখার জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে এখনই জানানো হবে।