ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রুপের হামলায় আহত-৮

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান তুষার গ্রুপের হামলায় আহত হয়েছেন অপর পক্ষের ৬-৮জন ছাত্রলীগ কর্মী। তারা সবাই ছাত্রলীগের সিনিয়ার যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক শামস্ আবরার রিদম গ্রুপের বলে জানা যায়।

মঙ্গলবার( ২০ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় ডেন্টাল ২০১৮-২০১৯ সেশনে,নবীন শিক্ষার্থীদের ভর্তি সহায়তাকে কেন্দ্র করে সভাপতি আতিকুর রহমান তুষারের নেতৃত্বে, সিনিয়ার যুগ্ন-সাধারন সম্পদক শামস্ আবরার রিদম গ্রুপের ওপর এ হামলা করেন বলে অভিযোগ উঠে।এসময় আহত হন ছাত্রলীগকর্মী সঞ্জীব সরকার বোনাস (বিডিএস-৫),প্রতীক বিশ্বাস (ম-৫৪),মুনতাসীর রাতুল (বিডিএস-৭),আসফাক কবীর প্রহর (ম-৫৪),ওমর ফারুক সাগর (বিডিএস-৭),রবিউল (বিডিএস-৬) সহ বেশ কয়েক জন ছাত্রলীগ কর্মী।

এ ব্যাপারে ছাত্রলীগ সভাপতি আতিকুর রহমান তুষারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ঘটনার সময় ছিলাম না,আরা এটা তাদের নিজেদের মধ্যে ঘটেছে বলে শুনেছি। আহতরা ছাত্রলীগের কর্মী কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন তারা ছাত্রলীগ কর্মী কিন্তুু সাভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের বাইরে রাজনীতি করেন।

অপরদিকে শামস্ আবরার রিদম লিখিত অভিযোগে বলেন, “এই ধরণের ঘটনা এই প্রথম নয়, ছাত্রলীগ সভাপতি তুষারের ক্যাডার বাহিনী প্রতিনিয়তই শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করেন এবং তারই ধারাবাহিকতায় আজ সকালে ভর্তি কার্যক্রম ব্যহাত করার জন্য এই হামলা চালান।তিনি আরও বলেন, তুষারের ক্যাডার বাহিনীর এই কর্মকান্ডে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে ছাত্রলীগ আজ প্রশ্ন বিদ্ধ।এটা সত্যিই খুব দুঃখ জনক ঘটনা। আর প্রশাসনের নির্লিপ্ত ভুমিকা সাধারন ছাত্রছাত্রীদের কাছে উদ্বেগের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে”।হামলার পরবর্তী সময়ে শামস্ আবরার রিদমের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে একটি মিছিল বের হয়।