সুনামগঞ্জে অ্যাডঃ মইনুদ্দিন জালালের স্মরণে শোকসভা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ও যুব ইউনিয়ন সুনামগঞ্জ জেলা শাখার যৌথ আয়োজনে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাঠাগারে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ও যুব ইউনিয়নের সাবেক নেতা প্রতিশীল ও সামাজিক আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক অ্যাডঃ মইনুদ্দিন জালালের স্মরণে সুনামগঞ্জে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
যুব ইউনিয়নের জেলা সভাপতি আবু তাহের-এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন এর সঞ্চালনায় শোকসভায় বক্তব্য রাখেন,মুক্তিযুদ্ধ চর্চা ও গবেষণা কেন্দ্রের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডঃ বজরুল মজিদ চৌধুরী খসরু,শিক্ষাবিদ ধূর্জটি কুমার বসু,জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়,জেলা মহিলা সংস্থার সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য ফৌজি আরা বেগম শাম্মী,শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাঠাগারের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ সালেহ আহমদ,জেলা মহিলা পরিষদের সভানেত্রী গৌরি ভট্টাচার্য্য,জেলা উদীচীর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সঞ্চিতা চৌধুরী,লেখক ও সাহিত্যিক সুকেন্দু সেন,অ্যাডঃ রুহুল তুহীন,জেলা সিপিপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ এনাম আহমদ,জেলা উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম,জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তারেক চৌধুরী প্রমুখ।
বক্তারা বলেন,মইনুদ্দিন জালাল ছিলো ভরসার নাম। অ্যাড. মইনুদ্দিন জালাল ছিলেন প্রগতিশীল আন্দোলনের মূর্ত প্রতীক। সুনামগঞ্জবাসীর সকল কাজে তাঁকে পাওয়া যেতো। একজন আত্মপ্রচারবিমুখ নেতা হিসেবে নতুন নেতৃত্ব তৈরিতে নিরলস ভাবে কাজ করে গেছেন। মইনুদ্দিন জালাল কখনও সামপ্রদায়িকতার কাছে মাথা নত করেন নি। একজন প্রগতিশীল আন্দোলনের ধারক-বাহক হিসেবে জীবনে প্রতিটা ক্ষেত্রে স্বোচ্ছার ছিলেন তিনি। অসময়ে তাঁর চলে যাওয়াটা সুনামগঞ্জের জন্য অপুরণীয় ক্ষতি বলে মনে করেন তাঁরা। তাই মইনুদ্দিন জালালের আর্দশ ধরে রাখার জন্যে নতুন প্রজন্মের প্রতি আহবান রাখেন বক্তারা।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ