শ্রীপুরে নকল সরবরাহ করায় শিক্ষকের ২ বছরের সাজা, ছাত্রী বহিষ্কার

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে জেএসসি পরীক্ষায় নকল সরবরাহ করায় ভ্রাম্যমান আদালত এক শিক্ষককে দুই বছরের সাজা ও অনাদায়ে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার শ্রীপুর সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সাজা ও বহিস্কারের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চলতি জেএসসি গণিত পরীক্ষায় উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের গোসিংগা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী প্রবীন শিক্ষক হেলাল উদ্দিন শ্রীপুর সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ১নং হলে একই ইউনিয়নের খোজেখানী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী রুনাকে নকল সরবরাহকালে কেন্দ্রের দায়িত্ব প্রাপ্ত উপজেলা পরিবারপরিকল্পনা কর্মকর্তা জিনাত সারমিন হাতেনাতে ধরে ফেলেন। পরে পরীক্ষা শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেহেনা আকতার ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ওই শিক্ষককে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও অনাদায়ে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সাথে ওই ছাত্রীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করেন। সাজাপ্রাপ্ত শিক্ষকের বাড়ী ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার মশাখালী ইউনিয়নের মশাখালী গ্রামের জয়নাল আবেদীনের পুত্র। সে স্কুলের পাশে ভাড়ায় থেকে শিক্ষকতা করতেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাজাপ্রাপ্ত শিক্ষকের সহকর্মীরা ও ওই স্কুলের সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা জানান, স্যার সরলতার সাথে দীর্ঘদিন যাবত শিক্ষকতা করে আসছেন। ৩/৪মাসের মধ্যে তাঁর অবসরে যাওয়ার কথা ছিল। এই অমানবিক সাজা দেওয়ার জন্য তারা মর্মাহত।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ