গৌরীপুরে এসএসসি পরীক্ষায় অতিরিক্ত ফি আদায়ে সংবাদ সম্মেলন

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রতিবাদে বুধবার (৭ নভেম্বর) উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে সংবাদ সম্মেলন ও স্মারকলিপি পেশ করে। বোর্ড কতৃক নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত নেয়া বন্ধ ও পরীক্ষার্থীদের নিকট থেকে আদায়কৃত অতিরিক্ত ফি’র টাকা ফেরতের দাবিতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারহানা করিমের নিকট স্মারকলিপি পেশ ও গৌরীপর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে।
ইউএনও ফারহানা করিম স্মারকলিপি প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সরকার নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত ফি আদায়ের কোন সুযোগ নেই। অভিযোগটি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
স্মারকলিপি শেষে গৌরীপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মিজানুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা মো. অন্তর খান পাঠান, ওয়াসিকুল ইসলাম রবিন, মো. আশফাকুর রহমান, মো. এমদাদুল হক এমদাদ, মো. শাহজাহান, মো. ফাহিম আহম্মেদ অনিক, মো. মজিবুর রহমান সুমন, ওয়াবদুল্লাহ আল ইমরান, আশিকুর রহমান, আলমগীর হোসেন, আলিম উল্লাহ, নাজমুল ইসলাম রুমান, আশিকুর রহমান তারিফ প্রমুখ।
লিখিত বক্তব্যে জানান, বোর্ড কতৃক নির্ধারিত ফি হচ্ছে কেন্দ্র ফি ও ব্যবহারিক ফিসহ মানবিক ও বাণিজ্য শাখায় ১৬৫০টাকা ও বিজ্ঞান শাখায় ১৭৭০টাকা। তবে জোরপূর্বক ২হাজার থেকে ৩হাজার টাকা আদায় করা হচ্ছে। তারমধ্যে হাসনপুর দাখিল মাদ্রাসা ও লক্ষীপুর নাছির উদ্দিন দাখিল মাদ্রাসায় ৩০০০ টাকা, লামাপাড়া কেরামতিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ২৮০০টাকা নেয়া হয়েছে। এছাড়াও ২২শ থেকে ২৫শ করে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে নুরুল আমিন খান, অগ্রদূত নিকেতন, ডৌহাখলা উচ্চ বিদ্যালয়, শ্যামগঞ্জ বহুমূখী, নহাটা, বালিজুড়ি, চান্দের সাটিয়া মডেল, ভূটিয়ারকোনা আদর্শ, তালে হোসেন খান, খলতবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়, শালীহর এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রারাসা, ইসলামাবাদ সিনিয়র মাদ্রাসা, কাউরাট আকাবর আলী দাখিল মাদ্রাসা, ২হাজার থেকে ২৩শ করে রামগোপালপুর পিজেকে, গৌরীপুর পাইলট বালিকা, মনাটি, মাইজহাটী উচ্চ বিদ্যালয়, রাইশিমূল দারুচ্ছুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসা, ২২শ থেকে ২৩শ করে মাওহা, ভালুকাপুর, শ্যামগঞ্জ বালিকা, লালখান, শালীহর হাজী আমির উদ্দিন, পাছার, সহরবানু বালিকা, ড. এম আর করিম, শাহগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ, ২৩শ থেকে ২৪শ বারুয়ামারী, গোবিন্দপুর, লামাপাড়া আদর্শ, মোজাফফর আলী ফকির, ২হাজার টাকা করে বোকাইনগর ফাজিল মাদ্রাসা, রাইশিমূল দারুচ্ছুন্নাহ, পাছার ছামাদিয়া ও বেলতলী দাখিল মাদরাসায় নেয়া হচ্ছে। এসব অভিযোগ সম্পর্কে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. সাইফুল আলম বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। কোন প্রতিষ্ঠান বেশি নিলে বা নিয়ে থাকলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।