মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র

নিউজ ডেস্ক :  বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র করা হয়েছে। শনিবার ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। শনিবার সন্ধ্যায় মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের আইন পেশার চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকটি শুরু হয়। রাত সাড়ে নয়টায় বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল গণমাধ্যমকে বলেন, আবার সংলাপ চেয়ে রোববার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হবে। নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) চিঠি দিয়ে সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ না করার অনুরোধ করা হয়েছে। এ কথাও প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা চিঠিতে উল্লেখ থাকবে বলে ফখরুল জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, তাঁরা আশা করছেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁদের চিঠিতে সাড়া দেবেন এবং এবারের বৈঠক স্বল্প পরিসরে হবে।

এর আগে শনিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদাকে চিঠি দেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তাতে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সংলাপ শেষ হওয়ার পর জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণের জন্য অনুরোধ করেন। চিঠিতে বলা হয়, তফসিল ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করা হলে রাজনৈতিক দল ও জনগণের মধ্যে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আস্থা বাড়বে।

চিঠিটি শনিবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনে পৌঁছে দেন । যখন এই চিঠি নির্বাচন ভবনে পৌঁছানো হয়, তখন সিইসিসহ নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা নির্বাচনী প্রস্তুতিমূলক একটা বৈঠকে ছিলেন। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বৈঠক শেষে কমিশনে সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তাঁরা তখন পর্যন্ত ঐক্যফ্রন্টের চিঠি পাননি। তবে রোববার কমিশনের বৈঠক, তাতে তফসিল বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল ও জোটের নেতাদের সঙ্গে ড. কামালের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংলাপ হয়। পরদিন বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপ হয়। আজ রোববার ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে এবং পরদিন সোমবার এরশাদের জাতীয় পার্টির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ হবে। বাম গণতান্ত্রিক জোট ও ইসলামী ঐক্যজোটের সঙ্গেও সংলাপ হতে পারে।