বাংলাদেশ মেডিকেল থেকে মেজর জেনারেল (অবঃ) রফিকুল ইসলামের পদত্যাগ

স্টাফ রিপোর্টার: ধানমন্ডির বেসরকারী বাংলাদেশ মেডিকেল স্টাডিজ এন্ড রিসার্চ ইনষ্টিটি (বাংলাদেশ মেডিকেল নামে পরিচিত ) থেকে গত ১ নভেম্বর বিকালে পদত্যাগ করেছেন মেজর জেনারেল (অবঃ) রফিকুল ইসলাম।

মেজর জেনারেল (অবঃ) রফিকুল ইসলাম ধানমন্ডির বেসরকারী বাংলাদেশ মেডিকেল স্টাডিজ এন্ড রিসার্চ ইনষ্টিটি ও এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালনা পরিষদের অনারারী সেক্রেটারী পদে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

ধানমন্ডির বেসরকারী বাংলাদেশ মেডিকেল স্টাডিজ এন্ড রিসার্চ ইনষ্টিটি-এ তার বন্ধু ডা. আশরাফকে কলেজের অধ্যক্ষ পদে অধিষ্ঠিত করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তিনি পদত্যাগ করেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মেডিকেল স্টাডিজ এন্ড রিসার্চ ইনষ্টিটি-এর শিক্ষক, ডাক্তার ও কর্মকর্তা কর্মচারী ঐক্যজোটের নেতৃবৃন্দ।

তারা জানান ডা. আশরাফকে কলেজের অধ্যক্ষ পদে অধিষ্ঠিত করার জন্য প্রস্তাব করেছিলেন তিনি কিন্তু শিক্ষক, ডাক্তার ও কর্মকর্তা কর্মচারী ঐক্যজোটের নেতৃবৃন্দ তা সফল হতে না দেয়ায় তিনি অভিমান করে পদত্যাগ করেন। নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন ‘মেজর জেনারেল (অবঃ) রফিকুল ইসলাম অনারারী সেক্রেটারী পদে যোগদান করার পর থেকেই প্রতিষ্ঠানটি নানান অনিয়মে ডুবতে থাকে এবং শুরু হয় বিশৃঙ্খলা, ফলে সকলেই বিক্ষুব্দ ছিল তার কর্মকান্ড।

গতবছর উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজে সরকারী নিয়ম নীতি ভঙ্গ করে ‘আগে এলে আগে পাবেন’ নামক উদ্ভট নিয়মে ছাত্র ভর্তি করে কোটি কোটি টাকা ভর্তি বাণিজ্য করে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হন তিনি।

ভর্তিবাণিজ্য বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্ত শেষে ভর্তি বাণিজ্যের বিষয়টি প্রমানিত হয়েছে মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করার কারণেও বেকায়দায় ছিলেন তিনি।