বিউটি পার্লারকে বিউটি ইন্ডাস্ট্রিতে পরিণত করতে চাই

ভ্যালেন্টিনা সিনথিয়া একজন তরুণ নারী উদ্যোক্তা। প্রতিষ্ঠা করেছেন ভ্যালেন্টিনা বিউটি পার্লার। সমসাময়িক পার্লারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করেন তিনি। সিনথিয়ার শুরুটা হয়েছিল ২০১০ সালে এইচ, এস, সি পাশ করার পর। ছোটবেলা থেকেই তার ইচ্ছে ছিল বিউটি পার্লারের বিজনেস করার। তিনি বলেন, এ রকম চিন্তা ভাবনা থেকেই ইন্ডিয়া ও ব্যাংকক কোর্স করি বিউটিফিকেশনের উপর। কোর্স শেষ করে এসে কাজ শুরু করি। এভাবেই পথচল শুরু। -বললেন সিনথিয়া। প্রথমে পরিবারের সাপোর্ট ছিল না।

পরবর্তীতে অনেক কষ্ট করে সবাইকে রাজি করান। এবং বিজনেস এর জন্য যে মূলধন দরকার ছিল তার পুরোটা বাবা দিয়েছেন। আমি অনেক বড় পরিসরে শুরুটা করেছি। প্রথমে বসুন্ধরার সবচেয়ে বড় পার্লার ছিল এটি। আর কোন এ রকম বড় পার্লার ছিল না। যা ছিল সবগুলো ছোট ছিল। বিভিন্ন ফ্যাশন শো তে আমরা অংশগ্রহণ করি। বর্তমানে তার পার্লার ১২ জন নারীকর্মী কাজ করছেন বলে সিনথিয়া জানান।

তিনি বলেন, ভ্যালেন্টিনা নিয়ে আমার পরিকল্পনা ও ইচ্ছে রয়েছে প্রত্যেকটি জেলায় একটি করে ব্রাঞ্চ করার। ইতেমধ্যে খুলনা ব্রাঞ্চ খোলার জন্য কথা চলছে। আমার স্বপ্ন ভ্যালেন্টিনা বিউটি পার্লারকে বিউটি ইন্ডাস্ট্রিতে পরিণত করতে চাই। আমাদের নারীদের বিজনেস এর ক্ষেএে নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখা হয়। এটি সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা আমাদের জন্য। নারীদের অনন্য সেক্টরে কাজ করতে গেলেও এ রকম নেতিবাচক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশের মেয়েরা অনেক এগিয়ে গেছে এবং আরো যাবে। আমার ট্রেনিং সেন্টার করার ইচ্ছে ও রয়েছে। প্রত্যেক নারীই যেন সফল উদ্যোক্তা হতে পারে সেভাবেই ট্রেনিং দিয়ে তাদের গড়ে তোলা হবে।