জয়ের জন্য ২৪৭ রান দরকার বাংলাদেশের

নিউজ ডেস্কঃ  চট্টগ্রামে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশের সামনে ২৪৭ রানের লক্ষ্য দাঁড় করিয়েছে জিম্বাবুয়ে। টস হেরে ব্যাটে নামা জিম্বাবুয়ে শুরুতেই উইকেট হারায়। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে ৫২ ও তৃতীয় উইকেট ৭৭ রানের জুটিতে ভালো ভিত্তি পাই তারা। টপ অর্ডারের অন্য ব্যাটসম্যানরাও দৃড়তা দেখায়। কিন্তু শেষটা বাংলাদেশ বোলাররা নিজেদের নিয়ন্ত্রনে রাখে। আর তাতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৪৬ রান তুলতে পারে তারা।

জিম্বাবুয়ে শুরুতে ১৮ রানের মাথায় ওপেনার মাসাকাদজাকে হারায়। এরপর ৭০ রানের মাথায় ফিরে যান জহুয়া। তিনি ফিরে যাবার পর টেইলর-উইলিয়ামসের উইকেটে ভর করে ৭৭ রান যোগ করে সফরকারীরা। এরপর ব্যক্তিগত ৭৫ রানে ভয়ঙ্কর হওয়া টেইলরকে ফেরান মাহমুদুল্লাহ। তার আউটের পর রাজা-উইলিয়ামস দলকে টেনে নিচ্ছিলেন। শেন উইলিয়ামস ৪৭ রানে সাইফউদ্দিন বলে ফেরেন।

টেইলর-উইলিয়ামসকে আউট করেও জিম্বাবুয়েকে বড় চাপে ফেলতে পারেনি বাংলাদেশ। টেইলরের পরে ক্রিজে আসা সিকান্দার রাজাও ভালো শুরু করেন। তিনি খেলেন ৬১ বলে ৪৯ রানের ইনিংস। এরপর মাশরাফির বলে ফেরেন তিনি। জিম্বাবুয়ের রান তখন ৪৫.৩ ওভারে ৫ উইকেটে ২২৯। দলের ওই রানেই ফিরে যান পিটার মুর। পরের ৪ ওভারে ৪ উইকেট হাতে নিয়েও জিম্বাবুয়ে মাত্র ১৭ রান তুলতে পারে।

বাংলাদেশের হয়ে এ ম্যাচে ১০ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন সাইফউদ্দিন। এছাড়া মাশরাফি, মুস্তাফিজ, মেহেদি মিরাজ এবং মাহমুদুল্লাহ একটি করে উইকেট নেন।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে অপরিবর্তিত দল নিয়ে মাঠে নামে। এক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে জিম্বাবুয়ে। তাদের দলে ফিরেছেন এলটন চিগুমবুরা। চট্টগ্রামে শিশির বড় কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। এছাড়া চট্টগ্রামে সর্বশেষ সাত দিবারাত্রীর ওয়ানডে ম্যাচের চারটিতে পরে ব্যাট করা দল জয় পেয়েছে। তাই টসে জিতে বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক বল করার সিদ্ধান্ত নেন। ব্যাটিং উইকেট হিসেবে সমাদর পাওয়া চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এই রান টাইগারদের হাতের নাগালে আছে বলতে হবে।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, ফজলে রাব্বি, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, মেহেদি মিরাজ, সাইফউদ্দিন, মাশরাফি মর্তুজা (অধি.), মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: হ্যামিলটন মাসাকাদজা (অধি.), ক্যাপহাস জহুয়া, ব্রেন্ডন টেলর, শেন উইলিয়ামস, সিকান্ডার রাজা, এলটন চিগুমবুরা, পিটার মুর, কাইল জারভিস, ব্রেন্ডন মাভুত, ডোনাল্ড ট্রিপানো, টেন্ডি সাতারা।