শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচন হবে: মোশাররফ

রাউজান, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশররফ হোসেন এমপি বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে জননেত্রী শেখ হাসিনার অধীনে। তিনি বলেন শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু সহ যে উন্নয়ন করে চলছেন এটির ধারাবাহিকতা অব্যহৃত রাখতে আওয়ামীলীগের বিকল্প নেই। তিনি বলেন ১১ লক্ষ রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়ে শেখ হাসিনা হয়েছেন মাদার অব হিউমিনিটি তথা মানবতার মা।

তিনি আরো বলেন বর্তমান সরকার ৭০ লক্ষ গরীব অসহায়কে বয়স্ক, বিধবা, পঙ্গু, মাতৃত্বকালীন ভাতা দিচ্ছে। তিনি বলেন ভারতের মোদি সরকার আমাদের ভাতা দেওয়ার কথা শুনে অবাক হয়েছেন এবং ভারতেও এ ভাতা চালুর চিন্তা করছেন। মন্ত্রী মোশাররফ বলেন বদরু,কামাল,রব,মান্নানরা যত ষড়যন্ত্র করুকনা কেন সঠিক সময়ে নির্বাচন হবে। শেখ হাসিনা নিরেপক্ষ বলেই কুমিল্লা ও সিলেটে মেয়র নির্বাচনে বিএনপি জয়ী হয়েছেন। সামনেও সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই হবে এছাড়া বিকল্প কোন পথ নেই।

তিনি বিএনপির কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন এ্যামেরিকার বারাক ওবামা আর ভারতের মনমোহন সিং কী পদত্যাগ করে নির্বাচন করেছিলেন। তিনি বলেন রাউজানের যে উন্নয়ন আজ দেখলাম, আমি ২০/২২ বছর আগেও এসেছিলাম সেসময় এ ধরনের রাস্তাঘাট, স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন স্থাপনার উন্নয়ন ছিলনা। ফজলে করিম দায়িত্ব নেওয়ার পর এসব উন্নয়ন হয়েছে। তিনি বলেন ফজলে করিমের বিকল্প আর কারো দেখছিনা, তিনিই হবেন আগামী সংসদ নির্বাচনে রাউজানে নৌকার প্রার্থী। তিনি সকলকে হাত তুলে নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য ওয়াদা করান।

তিনি গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় রাউজান হলদিয়া এয়াছিন শাহ কলেজ ময়দানে বিশাল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এতে প্রধান বক্তা ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কীত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী আলহাজ্ব মাহাবুবুল আলমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব একে এম এহেছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল,জেলা নেতা ইউনুচ গণী চৌধুরী, মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য এস এম বাবর,ইউনিয়ন যুগ্ন সম্পাদক জিয়াউল হক চৌধুরী সুমন,সরোয়ার উদ্দিন,উপজেলা যুবলীগ নেতা মুহাম্মদ মনসুর,সাবেক ছাত্র নেতা সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ নেতা এটি এম পেয়ারুল ইসলাম, জেলা নেত্রী দিলোয়ারা ইউছুপ,বাসন্তী পালিত,কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুঃ জসিম উদ্দিন,আব্দুল মোমেন চেয়ারম্যান,ডাবুয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান চৌধুরী,হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা শামসুল আলম চৌঃ,রুনু ভট্টচার্য,একেএম তহিদুল আলম, ডাবুয়া আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী সাহাব উদ্দিন,মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলাম সিদ্দীকি,মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুছ,মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের,অধ্যক্ষ সাইদুল আলম খাকী,অধ্যক্ষ আমির আহাম্মদ আনোয়ারী,অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বখতিয়ার সাইদ ইরান,বর্তমান সভাপতি তানভির হোসেন তপু,সেক্রেটারী রেজাউল করিম,সাবেক জেদ্দা আওয়ামীলীগ সাবেক সভাপতি দিদারুল আলম, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা সাইফুল,তসলিম,ছাত্রলীগ নেতা জাবেদ,আরমান,মেম্বার মুহাম্মদ আলী,সবুজ মেম্বার,সুজিদ দত্ত,মহিলা নেত্রী সাহেদা আকতার রুজি,সেনোয়ারা বেগম। গতকাল শনিবার সারাদিন রাউজানের গহিরা,আমিরহাট,জলীল নগর,কদলপুর,পাহাড়তলী,নোয়াপাড়া,উরকিরচর সহ ৭টি জনসভায় বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী মোশাররফ হোসেন। এসব সভায় হাজার হাজার নারী-পুরুষ অংশ গ্রহন করেন।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/প্রিন্স