‘নদী বিলাস’ আসছে চ্যানেল আই’তে

নিউজ ডেস্ক: কেউ কথা না রাখলেও কথা রেখেছে ‘টেলিভিশন নাট্যকার সংঘ’। নাট্যকার তৈরির মতো কঠিন পরীক্ষায় বেশ ভালোভাবেই উৎরে গেছে প্রতিষ্ঠানটি। তিন মাসব্যাপী নাটক রচনা প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালনা। প্রতিটি প্রশিক্ষণার্থীকে দিয়ে একটি করে নাটক লেখানো এবং সেখান থেকে বাছাই করে তিনটি নাটক টেলিভিশনে প্রচারের মহাযজ্ঞ শেষ হতে যাচ্ছে ১৯ অক্টোবর। ওইদিন চ্যানেল আইয়ে প্রচারিত হবে প্রতিযোগিতার সেরা নাটক ‘নদী বিলাস’। নাটকটির রচয়িতা মাসুদ রানা সবুজ। নির্মাণ করেছেন গুণী নাট্যনির্মাতা সুমন আনোয়ার।

নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, আহসান হাবিব নাসিম, জাকিয়া বারী মম ও মনিরা মিঠুর মতো অভিজ্ঞ অভিনেতারা। এরইমধ্যে নাটটির দৃশ্য ধারণের কাজ শেষ হয়েছে।

নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে নির্মাতা সুমন আনোয়োর বলেন, ‘ নদী ভাঙা মানুষ দুলু শেখ। নদীতে বিলীন হয়েছিলো ঘরবাড়ী সব, তারপরও নদীর সাথেই বাঁধা ছিলো দুলু শেখের জীবন, বউ বাচ্চা সংসার নিয়ে বিপদে পরা দুলু শেখ বহু কষ্টে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষ করেছেন। সেই যুদ্বের কথা আজও ভোলেনি দুলু শেখ, আজ তার ছেলে মেয়েরা অনেক বড় চাকরি করে, ছোটো ছেলের সাথে তার বাড়ীতে ঢাকায় থাকে দুলু শেখ, কিন্তু আজও তাকে নদী টানে, নদীর কাছে কি যেন মায়া, হয়তো স্ত্রীকে কবর দিতে পারেনি, কলার ভেলায় নদীতে ভাসিয়ে দিতে হয়েছিলো লাশ, তাই হয়তো নদীর জলেই স্ত্রীকে খুঁজে পান, আর সে কারণেই শহরের ইট কাঠের ভেতরও দুলু শেখকে নদী টানে। ছোটো ছেলের স্ত্রীও আপন করে নিতে পারেনি শ্বশুরকে, ছোটো ছেলের স্ত্রীর তাকে বোঝা ভাবাটা দিন রাত বুঝতে পেরেও ছেলেকে একটুও বুঝতে দেন না দুলু শেখ, একদিন সহ্য করতে না পেরে নদীর কাছেই ছুঁটে যায় দুলু শেখ।

অভিনয়ের অনভূতি জানাতে গিয়ে জাকিয়া বারী মম বলেন, ‘ধন্যবাদ চ্যানেল আইকে নতুন নাট্যকারের গল্পকে প্রযোজনার মধ্য দিয়ে দর্শকের কাছে তুলে ধরার উদ্যোগ নেওয়ার জন্য। সুমন আনোয়ার ভাই ধারাবাহিকভাবেই ভালো নাটক/টেলিফিল্ম নির্মাণ করেন। সেই ধারাবাহিকতায় ‘নদী বিলাস’ নাটক নির্মাণেও তার মেধার ছাপ পাওয়া যাবে। আমাদের এই সময়ের নাটকের গল্পগুলো থেকে ভালো বোধটা প্রায় হারিয়েই যাচ্ছে। নতুন নাট্যকার সবুজের এই নাটকের একটা ভালো বোধ উপলদ্ধি করার জায়গা আছে। যেটা মানুষের জীবনে থাকাটা খুব প্রয়োজন। এই নাটকের গল্পে সেই বোধটা আছে বলেই গল্পের ভেতরে প্রবেশ করে আমি অভিনয় করেছি। আমার সহশিল্পী হিসেবে নাসিম ভাইও যেমন অসাধারণ অভিনয় করেছেন। অনুরূপভাবে বাবু ভাই এবং মিঠু আপাও।’

নাসিম বলেন,‘ এটা নিঃসন্দেহে অনেক ভালোলাগার যে নতুন একজন নাট্যকারের স্ক্রিপ্ট নিয়ে সুমন আনোয়ারের মতো মেধাবী একজন নির্মাতা নাটক নির্মাণ করেছেন। এটা সত্যিই এই সময়ে দৃষ্টান্তমূলক সমন্বয়। আগামীর পথচলায় সবার জন্য এক নতুন অনুপ্রেরণা। সৃজনশীল সংগঠন গুলোর কাজ এমন হওয়াই উচিত বলে মনেকরি আমি।’ আগামী ১৯ অক্টোবর চ্যানেল আইতে দুপুর ২টার সংবাদের পর ‘নদী বিলাস’ প্রচার হবে বলে জানিয়েছেন সুমন আনোয়ার।

এ বিষয়ে টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের সভাপতি ও কোর্সের অন্যতম প্রশিক্ষক মাসুম রেজা বলেন, আমরা শুরুতেই কমিটেট ছিলাম প্রতি ছয় মাসে একটা করে প্রশিক্ষণ কোর্স হবে এবং আন্তরিক ছিলাম যেন এটা শুধুই সার্টিফিকেট সর্বস্ব কর্মশালা না হয়। আমরা চেয়েছিলাম প্রত্যেকে অন্তত একটা করে নাটক লিখবে। আমি মনে করি আমরা সাকসেস। আমরা শেষপর্যন্ত এসেছি।

তিনি বলেন, তিনজন তরুণ নাট্যকারের লেখা তিনটি নাটক চ্যানেল আই তাদের নিজস্ব প্রযোজনায় নির্মাণ করে প্রচারের ব্যবস্থা করেছে। এখন তারা যদি তাদের শ্রম-ঘাম দিয়ে কাজটা করেন তাহলে শিগগিরই তাদের স্বীকৃতি পাবেন।