মার্কিন নেতৃত্বাধীন জলদস্যু-বিরোধী বিশেষ বাহিনী

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তান আর ভারত মহাসাগরের পশ্চিমাঞ্চলে তৎপর  মার্কিন নেতৃত্বাধীন বিশেষ বাহিনী(সিটিএফ) ত্যাগ করেছে পাকিস্তান। পূর্বে করা এক চুক্তি অনুযায়ী পাকিস্তানের টহল যুদ্ধজাহাজগুলোকে জ্বালানির মূল্য পরিশোধে অস্বীকার করায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুটি উচ্চ পর্যায়ের সামরিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সামরিক কর্মকর্তারা মনে করেন, জলদস্যু মোকাবিলায় পাকিস্তানের নৌবাহিনীর দক্ষতার কারণে সিটিএফ দেশগুলো পাকিস্তানের অনুপস্থিতি বুঝতে পারবে। এছাড়া, পশ্চিমা পতাকাবাহী জাহাজগুলোর জন্য বন্ধুত্বপূর্ণ নয় এমন জলসীমায় পাকিস্তানী জাহাজগুলো টহল দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। এজন্যও পাকিস্তানের অনুপস্থিতি বাহিনীটির ওপর প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন সামরিক কর্মকর্তারা।

২০১৩ সাল থেকে বেশ কয়েকবার পাকিস্তান এই বাহিনীর নেতৃত্ব দিয়েছে এবং আরব উপসাগর, ভারত মহাসাগর, এডেন উপসাগর, লৌহিত সাগর ও সুয়েজ খাল এলাকায় টহল দেওয়া যুদ্ধজাহাজগুলোর সঙ্গে টহল অপারেশন দিয়েছে। 

এক বিবৃতিতে বাহরাইন-ভিত্তিক কম্বাইন্ড মেরিটাইম ফোর্স (সিএমএফ) নিশ্চিত করেছে যে, পাকিস্তানের জাহাজগুলো আর সিটিএফ’র কাজে অংশ নিচ্ছে না। উল্লেখ্য, সিটিএফ হচ্ছে সিএমএফ এর একটি সদস্য সংগঠন। 

সিএমএফ মুখপাত্র ওয়েন্ডি হুইটলে বলেন, এখন পাকিস্তান শুধু এই অঞ্চলের ব্যাপার অত্যন্ত অভিজ্ঞ এমন নৌসেনা দিয়ে সাহায্য করছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে সিটিএফ-১৫১ টিমে পাকিস্তান নেই। প্রতি ৪ থেকে ৬ মাসে নতুন টিম গঠন করা হয়।

অংশগ্রহণ স্বেচ্ছামূলক এবং কোন দেশ না চাইলে তাকে এতে দায়িত্ব পালন করতে বলা হয় না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। -আল জাজিরা ও সাউথ এশিয়ান মনিটর