‘আয়নাবাজি’র মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করবো: সুজানা

নিউজ ডেস্ক: দেশের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সুজানা জাফর। এখন মডেলিং ও অভিনয় কোন মাধ্যমেই নিয়মিত নন তিনি। মনোযোগ দিয়েছেন ব্যবসাতে। ব্যবসার কাজেই উড়াউড়ি করছেন ঢাকা টু আরব আমিরাত। কারণ তার শোরুমের পোশাকগুলো সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকেই আমদানি করা হয়। তাই কাজের সুবাধে সপ্তাহ পর পরই উড়াল দেন দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে। পাশাপাশি প্রতিবন্ধীদের জন্যও কাজ করছেন তিনি।   

একজন সুজানা দর্শকদের কাছে পরিচিতি পেয়েছেন অভিনয় ও মডেলিংয়ের মাধ্যমে। এখন সেই মাধ্যমেই কাজ করছেন না। এ মাধ্যম কাজ কমিয়ে দেয়ার কারণ কী?  প্রশ্ন রাখলে সুজানা বলেন, ‘এখন তো ব্যবসার দিকেই মনোযোগ বেশি। তবে অভিনয়, মডেলিং যে একেবারেই করছি না তা কিন্তু নয়। মিডিয়ায় ক্যারিয়ারের তো অনেক দিন হলো। এখন ভালো ভালো কাজ ছাড়া করতে ইচ্ছে করেনা। আর আমি তো পরিচালকদের সঙ্গে কাজের জন্য খুব একটা যোগাযোগও করিনা। তবে ব্যবসার শুরুতে দিকে এ দিকেই বেশি সময় দিতে হচ্ছে। তবে এখন ভালো নির্মাতার ভালো গল্পের নাটকে অভিনয় করতে চাই। ভালো কাজ পেলে নিয়মিত হবো।’

‘তবে কাজের প্রস্তুাব যে আসে না তা কিন্তু নয়। প্রচুর কাজের প্রস্তুাব পাই। প্রতি মাসেই মিউজিক ভিডিও করার অনেক অফার আসে। কিন্তু এখন যা তা কাজ করতে চাইনা। তাই অফারগুলো বিনয়ের সঙ্গেই না করে দেই।’  

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে তো আপনার দারুন বন্ধুত্ব। সে দেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা। আপনি চলচ্চিত্রের নায়িকা না হয়ে নাটক, বিজ্ঞাপন মিউজিক ভিডিওর মধ্যেই নিজেকে সীমাবদ্ধ রেখেছেন কেন? প্রশ্ন রাখতেই সুজানা বলেন,‘ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই অনেক চলচ্চিত্রের প্রস্তাব পেয়েছি। কিন্তু করা হয়নি। আসলে পরিবার থেকে চায়নি আমি নাচ গানের ভরপুর কোন চলচ্চিত্র করি। আমিও মিডিয়াতে কাজ নিয়ে কখনও সিরিয়াস হয়নি। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে আয়নাবাজির মতো চলচ্চিত্র হলে আমার অভিনয় করা উচিত। তাই সিদ্ধান্ত বদল হয়েছে।এ ধরনের চলচ্চিত্রের প্রস্তাব এলে অভিনয় করবো।’

এদিকে নিজের একটি সুখবর জানালেন সুজানা। বছরের শুরুতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ড্রাইভিং শিখছেন তিনি।  দেশটির আল কুয়োজ এলাকায় বিশ্ববিখ্যাত বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টারে গাড়ি চালানোর জন্য এরই মধ্যে কোর্সও শেষ করেন।  এবার হাতে পাচ্ছেন ইন্টারন্যাশনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স। চলতি সপ্তাহেই আরব আমিরাতে গিয়ে সেটা সংগ্রহ করবেন বলে জানন সুজানা।