রাজধানীতে শিল্পকলা একাডেমির অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে শনিবার রাজধানীর মীরপুসহ বিভিন্ন স্থানে অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। এই প্রদর্শনীর শিরোণাম হচ্ছে ‘ শিল্পের শহর ঢাকা ’।

শিল্পকলা একাডেমির নিজম্ব শিল্পীদের বৈচিত্রপূর্ণ এই অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী নগরীর বিপুল সংখ্যক মানুষ উপভোগ করেন। সকাল দশটায় মীরপুর দশ নম্বর চৌরাস্তার ফুটপাতে শিল্পীরা দিনের প্রথম প্রদর্শনী করেন। তাদের নানা ভঙ্গি ও ইভেন্টের প্রদর্শনী দেখতে অফিসমুখী বিপুলসংখ্যাক পথচারির ভিড় লেগে যায়।

প্রদর্শনীতে শিল্পকলা একাডেমির ৩৬ জন শিল্পী এই ইভেন্টে অংশ নেন। প্রদর্শনী শুরুর আগে শিল্পকলা একাডেমির এই ইভেন্টের প্রধান সমন্বয়কারী শিল্পী সুজন মাহবুব দর্শকদের উদ্দেশে বলেন ‘ শিল্পের শহর ঢাকা ’ শীর্ষক অ্যাক্রোবেটিক কার্যক্রম উপভোগ করতে ঢাকার মানুষের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ঢাকার ৪০০ বছরের সংস্কৃতির ইতিহাস নগরবাসির মাঝে তুলে ধরার জন্য ‘শিল্পের শহর ঢাকা’ কর্মসূচি গ্রহণ করে। তারই অংশ হিসেবে এই প্রদর্শনী হচ্ছে। আজ ঢাকায় এই দলটির ১৫১তম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হলো।

পরে নগরীর আগারগাঁওয়ে দুটি প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত দুই দিনে এই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয় ঢাকার কাওলা আমবাগান, মোহাম্মদপুর, পল্লীমা সংসদ প্রাঙ্গণ, খিলগাও এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি প্রাঙ্গণে।
শিল্পী সুজন মাহবুব জানান, একাডেমির নিজস্ব শিল্পীরা দেশব্যাগী ৬৪ জেলা ও ৮টি বিভাগীয় শহরে গত কয়েক মাসে প্রদশর্নী করেছেন। চলিত বছরের এপ্রিলে একাডেমির দেশব্যাপী অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শননী শুরু হয়েছিল। রাজধানী ঢাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে বাউল শিল্পীরা খেয়া নৌকায় গান গেয়ে কর্মসুচির সূচনা করেন। এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। নগরীতে আ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনীর মধ্যদিয়ে ‘ শিল্পের শহর ঢাকা ’ প্রদর্শনী শেষ হচ্ছে। বাসস