যে কেউ অনলাইনে আইনি সহায়তা চাইতে পারবে: আইনমন্ত্রী

প্রিন্স মাহমুদ: বর্তমানে দেশের মোবাইল গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ১৩ কোটিতে উন্নীত হয়েছে। তাই বিডি লিগ্যাল এইড অ্যাপ সরকারিভাবে আইনি সহায়তা প্রাপ্তির এক ডিজিটাল দরজা হিসেবে কাজ করবে। কারণ এই লিগ্যাল এইড অ্যাপ ব্যবহার করে হাতের কাছেই পাওয়া যাবে সরকারি আইনি সেবা।

মঙ্গলবার ঢাকায় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে সরকারি আইনি সেবার মানোন্নয়নে সহায়তা প্রদান প্রকল্পের অর্থায়নে নির্মিত লিগ্যাল এইড অফিস ম্যানেজমেন্ট সফট্ওয়্যার এবং বিডি লিগ্যাল এইড অ্যাপের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বললেন- আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার সকল ইউনিয়নে ডিজিটাল তথ্য কেন্দ্র স্থাপন করেছে। তৃণমূল পর্যায়ের সাধারণ মানুষ এইসব তথ্য কেন্দ্রে গিয়ে চাকুরির আবেদন থেকে শুরু করে সরকার প্রদত্ত বিভিন্ন ই-সেবা গ্রহণ করছেন। এখন থেকে বিডি লিগ্যাল এইড অ্যাপ ব্যবহার করে যে কেউ অনলাইনে আইনি পরামর্শ চাইতে পারবেন। এছাড়া অনলাইনে আইনগত সহায়তার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

মন্ত্রী বলেন, ইংল্যান্ড, আমেরিকার মতো উন্নত দেশসমূহের আদলে লিগ্যাল এইড সার্ভিসকে আরো বেশি যুগোপযোগী ও সহজতর করার লক্ষ্যে সরকার বিভিন্ন ওয়েবসাইট, সফটওয়্যার ও অ্যাপ তৈরির কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে সরকারি আইনি সেবার মানোন্নয়নে সহায়তা প্রদান প্রকল্পের অর্থায়নে সরকারি আইনি সেবার যাবতীয় তথ্য ও কার্যক্রম ডিজিটাল ডাটাবেইজে সংরক্ষণের উদ্দেশ্যে ‘লিগ্যাল এইড অফিস ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার’ এবং এ সম্পর্কিত একটি অ্যাপ নির্মাণ করা হয়েছে।

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মোঃ জহিরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ, আইন ও বিচার বিভাগের যুগ্মসচিব বিকাশ কুমার সাহা এবং জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার পরিচালক মোঃ জাফরোল হাছান এসময় উপস্থিত ছিলেন।