গণপরিবহণের ভেতরে গাড়ি নম্বর লেখা বাধ্যতামূলক করা হোক

মোহাঃ খোরশেদ আলম: ছোট বড় প্রায় প্রত্যেকটি যানবাহন রাস্তায় নামানোর পূর্বে ফিটনেসের পাশাপাশি গাড়ির সামনে-পেছনে সিরিয়াল ও নম্বর লেখা হয়। গাড়িটিকে বিভিন্নভাবে সনাক্ত করার উদ্দেশ্যে এই ব্যবস্থা নেয়া হয় বাধ্যতামূলকভাবে। পাশাপাশি গাড়ির ভেতরেও নম্বরটি থাকলে যাত্রীরা অনেক হয়রানী থেকে মুক্ত হবেন এবং অনেকক্ষেত্রে ভুলে রেখে যাওয়া মালামাল উদ্ধার করা সহজতর হবে।

বিশেষ করে, বর্তমানে যানবাহনগুলোতে মহিলা যাত্রীরা অনেকক্ষেত্রে নিরাপত্তাহীনতা ভুগেন, কিন্তু উক্ত ব্যবস্থা বাস্তবায়ন হলে চলাচলে অনেকটা নিরাপদ হবে। আমাদের দেশে গ্রামে-গঞ্জে, শহরের ভেতরে এবং হাইওয়ে রোডে যানবাহনগুলোতে যেসব যাত্রীরা চলাচল করেন, তারা গাড়ির ভেতরে অবস্থান করার কারনে গাড়িটিকে সনাক্ত করা কষ্টকর। কিন্তু গাড়ির ভেতরে নম্বরটি থাকলে অনায়াসে নম্বরটি লিখে রাখলে যে কোন পরিস্থিতিতে গাড়ি বা গাড়ির লোকজনকে চিহ্নিত করার সহজ হয়।

বর্তমানে মোবাইল-এর যুগ, তাই দূরের ভ্রমণে অনেকে জিজ্ঞাসা করে কোথায় আছ এবং কোন গাড়িতে আছ? বলতে পারেনা, না দেখে বলাও সম্ভব নয়। তাই ভেতরে নম্বরটি থাকলে তা অপরপ্রান্তের ব্যক্তিকে বলার সহজ হয়। অনেকে মহিলা বা বৃদ্ধ বাবা মা’কে তাদের এগিয়ে আনতে যোগাযোগ করা অনেকটা সহজ হয়। গাড়ির মালিকরা গাড়ি বিভিন্ন পিকনিক বা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ভাড়া দেয়ার জন্য যেভাবে ছ্ট্রো করে লিখে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা সংস্থার মোবাইল নম্বর দেয়া হয়।

অনুরূপ, নির্দিষ্ট গাড়ির নম্বর লেখার পাশাপাশি গাড়ি মালিকের মোবাইল নম্বর, ড্রাইভার এবং গাড়িটি যে রোডে চলাচল করে সে রোডের সংশ্লিষ্ট থানার মোবাইল নম্বর বাধ্যতামূলতকভাবে লেখা থাকলে যাত্রীরা অনেক হয়রানি থেকে রক্ষা পাবেন এবং প্রতিটি গাড়িতে দুষ্টু প্রকৃতির লোকজন যে কোন অন্যায় করতে ভয় পাবে। মাননীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, যোগাযোগ মন্ত্রীসহ উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষন করছি, যাত্রীদের ভ্রমণ আরো নিরাপদ নিশ্চিত করতে উপরে উল্লেখিত ব্যবস্থা বাধ্যতামূলকভাবে বাস্তবায়ন করার আদেশ দিতে বিশেষভাবে অনুরোধ রইল।