প্রায়ত নেতা ইব্রাহীমের কবর যিয়ারত করলেন সাবেক এমপি ফারুক

জাহিদুল ইসলাম,জাহিদঃ রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার সায়বাড় গ্রামের প্রায়ত, বিশষ্ট্য ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা ইব্রাহীমের কবর যিয়ারত করেন-রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এবং পুঠিয়া-দুর্গাপুরের সাবেক এমপি তাজুল ইসলাম মোহাম্মদ ফারুক।

উল্লেখ্য, শনিবার (১৫সেপ্টেম্বর) দুর্গাপুর উপজেলার সায়বাড় গ্রামের মৃত আহাদ আলীর ছেলে, বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ ইব্রাহীম আলী মন্ডল রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে চলে যান না ফেরার দেশে!

১৮ (সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার বিকালে,তাজুল ইসলাম মোহাম্মদ ফারুক ছুটে যান আওয়ামীলীগের দুঃসময়ের কান্ডারী, স্নেহভাজন প্রায়ত নেতা ইব্রাহীমের কবর যিয়ারত করতে সায়বাড় গ্রামে।বর্ষীয়ান এই নেতা দলের দুর্দিনে যেমন মানুষের পাশে ছিলেন। ঠিক তেমনি এখনও যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন নিজ এলাকার মানুষের সাথে। সর্বোপরি সাধারণ মানুষের আশা ভরসার শেষস্থল হয়ে উঠেছেন তাজুল ইসলাম মোহাম্মাদ ফারুক।তার নেতৃত্বের সততা,যোগ্যতা গুনাবলী মানুষকে মন্ত্র মুগ্ধের মতো আকৃষ্ট করেছে। দৃঢ় চেতা এই মানুষটি সকলের স্বজন ও অতি আপনজন হয়ে উঠেছেন।তিনি নিয়মিত এলাকায় জনসাধারণের সাথে মিশছেন,ঘুরছেন এবং পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে এগিয়ে চলছেন দিবারাত্রি। দুচোখে সোনালী স্বপ্ন নিয়ে, মানুষের সুখ সমৃদ্ধির কথা ভাবছেন নিরন্তর।পুঠিয়া-দুর্গাপুরের মানুষ মনে করেন এই মহান নেতার হাত ধরেই আসবে যত মঙ্গল,যত কল্যাণ,উন্নতি অপার সমৃদ্ধি।

এসময় সাবেক এমপি তাজুল ইসলাম মোহাম্মদ ফারুকের সাথে উপস্থিত ছিলেন, দুর্গাপুর উপজেলার সাবেক তথ্য ও প্রচার সম্পদক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ কবিরুল ইসলাম (আনিস), ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ আসরাফুল ইসলাম (খসরু), ৫ নংঝালুকা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মোঃ ইমরান আলী, সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক, ইউনিয়ান ছাত্রলীগ নেতা মোঃ তানভীর হেলাল, ইউপি সদস্য আব্দুল আওয়াল, ইউপি সদস্য মোঃ আনসার আলী, প্রায়ত নেতা ইব্রাহীমের ছেলে জামাল, কামাল, সুমন,ও ইমনসহ আওয়ামীলীগ এবং তার সহযোগী সংগঠনের নের্ত্রীবৃন্দ।