নওয়াজ শরিফকে মুক্তির আদেশ

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির মামলায় কারাগারে থাকা পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে মুক্তির আদেশ দেওয়া হয়েছে। 

নওয়াজের আপিলের শুনানি নিয়ে বুধবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টে তাদের দণ্ড স্থগিত করে এ আদেশ দেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে গত জুলাই থেকে কারাগারে বন্দি রয়েছেন নওয়াজ শরিফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। ওই মামলায় আপিল করেছিলেন তারা।

বুধবার আদালত সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আগের দেওয়া সাজা বাতিল করে তিনি ও তার মেয়েকে মুক্তির আদেশ দেন।

বিবিসি জানায়, ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে লন্ডনে গত সপ্তাহে মারা যান নওয়াজের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ। তাকে দাফনের জন্য সেসময় প্যারোলে মুক্তি পেয়েছিলেন নওয়াজ, তার মেয়ে ও জামাতা।

২৫ জুলাই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের আগে দুর্নীতির দায়ে গত ৬ জুলাই নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে ৭ বছর কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। 

আদালতের রায় ঘোষণার সময় বাবা ও মেয়ে লন্ডনে ছিলেন। ১৩ জুলাই লন্ডন থেকে লাহোরের বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর নওয়াজ শরিফ ও মরিয়ম নওয়াজকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের পর তাদের বিশেষ একটি প্লেনে করে ইসলামাবাদে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর তাদের নেওয়া হয়  আদিয়ালা জেলে নেওয়া হয়।    

লন্ডনে চারটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট কেনাকে কেন্দ্র করে নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়। নওয়াজ শরিফ বরাবরই এই অভিযোগকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করে আসছেন।