পাবনায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-১

নিউজ ডেস্কঃ পাবনার আতাইকুলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কোরবান হোসেন (৩৬) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার রাত দেড়টার দিকে এই ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। পুলিশের দাবি, নিহত কোরবান হোসেন চরমপন্থী দল নকশাল বাহিনীর আঞ্চলিক নেতা ছিলেন। তিনি আতাইকুলার যাত্রাপুর গ্রামের কিয়ামুদ্দিন প্রামানিকের ছেলে।

আতাইকুলা থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, রাত দেড়টার দিকে খবর আসে যে, কৈজরী গ্রামের সোবহানের কাঁঠাল বাগানে একদল চরমপন্থী সন্ত্রাসী গোপন বৈঠক করছে। এরপর পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে সেখানে গুলিবৃদ্ধ অবস্থায় এক ব্যক্তিকে পাওয়া যায়। উদ্ধার করে তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্থানীয়রা তার পরিচয় সনাক্ত করেন।

ওসি আরো জানান, এ ঘটনায় এএসআই মন্টু হোসেন ও ফারুক হোসেন, কনস্টেবল আব্দুর রউফ ও শাহিন আলী আহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থাল থেকে একটি রিভলবার, ৪ রাউন্ড কার্তুজ, ২টি কার্তুজের খোসা, ২০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, একটি ডায়াং মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। কোরবানের বিরুদ্ধে আতাইকুলা ও পাশ্ববর্তী আটঘরিয়া থানায় হত্যা-ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।