শহিদুল আলমকে ডিভিশন দিতে হাইকোর্টের আদেশ বহাল

নিউজ ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেফতার আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির বন্দির মর্যাদা (ডিভিশন) দিতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেননি চেম্বার বিচারপতি। এর ফলে শহিদুল আলমকে ডিভিশন দিতে বলা হাইকোর্টের আদেশ আপাতত বহাল থাকছে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

সোমবার চেম্বার বিচারপতি ইমান আলীর আদালতে আবেদনটি শুনানির জন্য ওঠে। রাষ্ট্রপ্রক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনালের মাহবুবে আলম। অপরদিকে শহিদুলের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন ও ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।

এর আগে ৫ সেপ্টেম্বর আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কারাবিধি অনুযায়ী প্রথম শ্রেণির মর্যাদা (ডিভিশন) দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদের করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সেদিন আদালত রুলসহ ওই নির্দেশ দেন।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গত ৫ আগস্ট রাতে দৃক গ্যালারি ও পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা শহিদুল আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে ‘উস্কানিমূলক ও মিথ্যা’ অপপ্রচারের অভিযোগে শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে এ মামলা করা হয়।

নিম্ন আদালত এ মামলায় শহিদুলকে জামিন না দেওয়ায় তার আইনজীবীরা হাইকোর্টে এসেছিলেন; কিন্তু হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ জামিন আবেদন শুনতে বিব্রত বোধ করেন।