এনজিওর ঋণের টাকা চাওয়ায়, স্ত্রীর শরীর ঝলসে দিলো পাষন্ড স্বামী

নিউজ ডেস্কঃ পাবনাএনজিও থেকে নেওয়া ঋণের কিস্তির টাকা চাওয়ায় গরম পানি দিয়ে স্ত্রী শাপলা খাতুনের (২৫) শরীর ঝলসে দিয়েছেন স্বামী শামীম হোসেন। রবিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার ধোপাদহ ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেশীরা জানায়, রবিবার সকালে শাপলা কিস্তির টাকা চাইতেই তার স্বামী রেগে গিয়ে গালিগালাজ করতে শুরু করেন। এক পর্যায়ে চুলায় ভাত রান্না করার গরম পানি ঢেলে দেয় শাপলার গায়ে। এসময় শাপলা চিৎকার শুরু করলে শামীম পালিয়ে যায়। পরে পরিবারের লোকজন শাপলাকে উদ্ধার করে সাঁথিয়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে চিকিৎসক তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

শাপলার মা ময়না খাতুন জানান, বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি মিলে তার মেয়েকে নির্যাতন করতো। শামীম কোনও কাজকর্ম করে না। নেশা করা আর জুয়া খেলা তার প্রধান কাজ।

এ বিষয়ে সাঁথিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মজিদ জানান, মেয়ের বাবাকে অভিযোগ দিতে বলেছি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রায় ১০ বছর আগে উপজেলার ধোপাদহ ই্উনিয়নের বড় পাইকশা গ্রামের শামসুলের মেয়ে শাপলা খাতুনের বিয়ে হয় একই ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের বাছেদ খান ওরফে মুনানের ছেলে শামীমের সঙ্গে। তাদের তিনটি সন্তানও রয়েছে