রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের আচারণবিধি নিয়ে আলোচনা সভা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: নির্বাচনী সহিংসতা প্রতিরোধে নাগরিক কুষ্টিয়ার উদ্যোগে হাংগার প্রজেক্ট সহযোগীতায় সম্প্রীতির মিলন মেলা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের আচারণ বিধি নিয়ে কুষ্টিয়ায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়ার একটি রেষ্টুরেন্টে শনিবার সকাল ১১টায় শুরু হয়ে এ আলোচনা সভা চলে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামীলীগ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা কমিটির সভাপতি আ, স, ম আক্তারুজ্জামান মাসুম ( জিপি), সাধারণ সম্পাদক মোঃ আখতারুজ্জামান, জাতীয় পার্টি জেলা সভাপতি নাফিজ আহমেদ টিটো, জাপা সদর ঊপজেলা কমিটির সভাপতি এ্যাডঃ মহর আলী, জাসদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি গোলাম মহসীন, ওয়ার্কাস পাটি কুষ্টিয়া জেলা সভাপতি ইসরারুল ইসলাম, , সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, বাসদ আহবায়ক সফিউর রহমান, সুজন সভাপতি জহুরুল হক মন্জুসহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ।

সরকারী ও জোট সমর্থিত রাজনৈতিক নেতারা বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনারের অধিনেই সুষ্ঠ নির্বাচন সম্ভব। একটি দল নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে নানা রকমের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন যা সাধারণ জনগণের কল্যান বয়ে আনতে পারে না। বর্তমান সরকার আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন। জনগন তাদের মৌলিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।

জাতীয় পাটি ও বাসদ নেতারা এর বিরোধীতা করে বলেন, এ সরকারের অধিনে নির্বাচন সুষ্ঠ হতে পারে না। তারা বলেন ৫ই জানুয়ারীর নির্বান তার প্রমান করেছে। জনগনের ভোটের অধিকার এ সরকার কেড়ে নিয়েছে। অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে হলে নির্বাচনকালিন নিরপেক্ষ সরকার গঠন করতে হবে। ক্ষমতায় থেকে নির্বাচন দিলে সে নির্বাচন সুষ্ঠ হবে না।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, রাজনৈতিক দলের নেতাদেরকে সহনশীল হতে হবে। একজন অপরজনকে শত্রু ভাবলে নির্বাচনে সহিংসতা বেড়ে যায়। তাই সকল রাজনৈতিক দলকে সমান অধিকার দিয়ে এবং নির্বাচন কমিশনকে প্রভাবমুক্ত রাখলে নির্বাচন সুষ্ঠ করা সম্ভব।

বক্তারা বলেন, কয়েকটি নির্বাচন ইতিমধ্যে হয়ে গেছে, ্ঐ সব নির্বাচনে দেখা গেছে সকাল ১০টার মধ্যে ব্যালট পেপার শেষ, ব্যালট বক্স ভর্তি হয়ে গেছে। ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে যেয়ে নিজেদের ভোট দিতে না পেরে ফিরে আসছে। এ সময় নির্বাচন কমিশনার কিছুই করতে পারেনি। তাই নির্বাচনী সহিংসা দুর করতে হলে সকল রাজনৈতিক দলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আলাপ আলোচনার মধ্য নিয়ে সুষ্ঠ নির্বাচন করা সম্ভব।

প্রিন্স, ঢাকা