প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে শোভাযাত্রা

কেন্দুয়া, নেত্রকোনা প্রতিনিধি: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে প্রথমবারের মতো শনিবার সকাল থেকে সারাদিন বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। নেত্রকোনায় শেখ হাসিনা বিশ্ব বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কেন্দুয়া ও তেলিগাতি কলেজ কে জাতীয়করণ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে বিশাল আনন্দ শোভা যাত্রার আয়োজন করেন বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মো: সাইদুর রহমান মানিক।

পাঁচ শতাধিক মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে এ শোভাযাত্রাটি মানিকের নিজ বাড়ি কেন্দুয়া উপজেলার কুনিহাটি গ্রাম থেকে শুরু করে কেন্দুয়া, আটপাড়া উপজেলার প্রতিটি রাস্তাঘাট ঘুরে আবার নিজ বাড়িতে গিয়ে শেষ হয়। দুপুর ১২টায় এ আনন্দ শোভাযাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন মুক্তিযোদ্ধা মো: সাইদুর রহমান মানিক। এ সময় তিনি বলেন, অবহেলিত নেত্রকোনা জেলাকে আলোকিত করতে শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কেন্দুয়া, তেলিগাতী কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করে নেত্রকোনাবাসীকে চিরঋণী করেছেন শেখ হাসিনা। যতদিন নেত্রকোনার মানুষ বেঁচে থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনার কথা একটি দিনের জন্যেও ভুলতে পারবেনা। আনন্দ শোভাযাত্রায় শতশত নেতাকর্মী জয় বাংলা, নৌকা, নৌকা শ্লোগানে বিভিন্ন রাস্তাঘাট মুখরিত করে তুলেন। তাদের শ্লোগান, শেখ হাসিনার নৌকা, মুক্তিযুদ্ধের নৌকা, কৃষকের নৌকা, শ্রমিকের নৌকা, আওয়ামীলীগের নৌকা, ছাত্রলীগের নৌকা, যুবলীগের নৌকা, বঙ্গবন্ধুর নৌকা ও মানিকের নৌকা।

আগামী নির্বাচনে এ নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারো শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসাতে দাবী জানান তারা। স্মরণকালের এ বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রাটিকে রাস্তার দুই পাশের নর-নারী, শিশু যুবক সহ সকল শ্রেণিপেশার মানুষ হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানায়। শোভাযাত্রায় অংশ নেয়া আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ ও মুক্তিযোদ্ধা সহ শত শত কর্মী সমর্থক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করার জন্য মুক্তিযোদ্ধা মো: সাইদুর রহমান মানিকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

কৃতজ্ঞতার জবাবে নেত্রকোনার- ৩ (কেন্দুয়া -আটপাড়া) নির্বাচনী এলাকার আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এডভোকেট মো: সাইদুর রহমান মানিক বলেন, এই নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার সুফল আপনারা আমরা সবাই পেয়েছি। অবহেলিত নেত্রকোনায় পেয়েছি শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, পেয়েছি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কেন্দুয়া ডিগ্রী ও তেলিগাতী কলেজ জাতীয়করণ সহ অনেক রাস্তাঘাট ব্রীজ কালবার্টের উন্নয়ন পেয়েছি। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা পেয়েছি বিশাল সম্মান, দেয়া হচ্ছে আমাদের সম্মানী ভাতা, তৈরি করে দেয়া হচ্ছে বাড়ি।

এই নৌকায় ভোট দিলে আগামী দিনে আমাদের আরো যে সব দাবী আছে সব দাবীই পূরণ হবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বলেছেন, তিনি তার পরিবারের এক বোন ছাড়া সকলকে হারিয়েছেন। এখন তিনি দেশের মানুষকে ভালোবেসেই দেশকে বিশ্ব দরবারে মাথাউঁচু করে দাঁড় করাতে প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দেশের জন্য তিনি জীবন উৎসর্গ করেছেন। তার চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই, শুধু দেবার পালা। তাই শেখ হাসিনার নৌকা মার্কার পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

বলাইশিমুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রস্তাবিত যুগ্ম সম্পাদক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আতিকুর রহমান তালুকদার চুন্নু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে এতবড় আনন্দ শোভাযাত্রা আর কখনো হয়নি। তিনি বলেন, এ বিশাল এ আনন্দ শোভাযাত্রার ফলে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে অন্যান্য প্রতক্ষদর্শীরা দাবী করেন।

প্রিন্স, ঢাকা