খালেদার অনুপস্থিতিতে বিচারের বিষয়ে আদেশ ২০ সেপ্টেম্বর

নিউজ ডেস্ক: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে মামলার বিচারকাজ চলবে কি না- সে বিষয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর আদেশ দেবেন আদালত। 
 
বৃহস্পতিবার রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারের ভেতরে অবস্থিত ঢাকার বিশেষ জর্জ আদালত-৫ এর বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ তারিখ ধার্য করেন।
 
এর আগে গত বুধবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ঢাকার পুরাতন কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে হাজির হতে অনিহা প্রকাশ করেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আদালতে দেয়া কারা কর্তৃপক্ষের প্রতিবেদন বলা হয়েছে-খালেদা জিয়াকে আদালতে যাওয়ার কথা বলা হলে তিনি আদালতে যেতে পারবেন না বলে জানান।
 
ঢাকার পুরাতন কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে এ মামলার বিচার চলছে। গতকাল বুধবার মামলাটির যুক্তিতর্ক শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে এজলাসে বিচারক আসলে খালেদা জিয়ার আইনজীবী মো. সানাউল্লাহ মিয়া জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন জানান।
 
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ, তিনি আদালতে হাজির হননি। ন্যায় বিচারের স্বার্থে জামিনের মেয়াদ বাড়ানো হোক। মামলার অপর দুই আসামি জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খানের জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির পাশাপাশি বিচার কার্যক্রম এক মাস স্থগিতের আবেদন জানান।
 
অন্যদিকে দুদকের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল আদালতের আদেশ অনুযায়ী যুক্তিতর্ক শুনানির আবেদন জানান। এর পর আদালত খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে কিনা এবং তার জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হবে কিনা তার জন্য আজ বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন।