শহিদুল আলমের জামিন নাকচ

নিউজ ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালত।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েস এ আদেশ দেন।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া ও সারা হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এই আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আবদুল্লাহ আবু।

এর আগে গত ৪ সেপ্টেম্বর শহিদুল আলমের করা জামিন আবেদন শুনতে বিব্রত বোধ করেন বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি খন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ। 

হাইকোর্ট তখন তার জামিনের বিষয়টি নিম্ন আদালতেই নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। সে অনুযায়ী মঙ্গলবার মহানগর দায়রা জজ আদালতে শুনানি হলেও জামিন পাননি শহিদুল আলম। ফলে জামিনের জন্য ফের হাইকোর্টেই যেতে হবে তার আইনজীবীদের।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে গত ৬ আগস্ট ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ বক্তব্য প্রচারের অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় শহিদুল আলমকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ। এর আগের দিন রাতে তাকে ধানমন্ডির বাসা থেকে তুলে নেয় ডিবি পুলিশ। সাত দিনের রিমান্ড শেষে গত ১২ আগস্ট তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন নিম্ন আদালত।