কারাগারে নিয়মিত খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়

নিউজ ডেস্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। এরপরও বেসরকারি দুটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার কথা বলেছেন বিএনপির নেতারা। তাদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে পুনরায় খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে।

রোববার বিকেলে সচিবালয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন। এরপর সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিকাল তিনটা থেকে বিকাল ৩টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত বিএনপি নেতৃবৃন্দের সাথে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামালের সাথে বৈঠক হয়। এসময় কারা মহাপরিদর্শক মেজর জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির প্রতিনিধি দলে আরো উপস্থিত ছিলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আদুজ্জামান কামাল বলেন, দেশের সরকারি ও বিশেষায়িত হাসপাতালগুলোতে উন্নত চিকিৎসা দেওয়া হয়। এসব হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য সম্পর্কে নিয়মিত খোঁজখবর ও পরীক্ষা করে থাকেন। এরপরও বিএনপির নেতারা তাদের কারাবন্দি নেত্রীকে বেসরকারি হাসপাতাল ইউনাইটেড ও অ্যাপোলোতে চিকিৎসা করানোর জন্য আবেদন করেছেন। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে পুনরায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে। শিগগির মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে। তবে ঠিক কবে বোর্ড গঠন করা হবে সে বিষয়ে জানাননি তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, তাদের নেত্রী কারাবন্দি রয়েছেন। তার স্বাস্থ্যগত অবস্থা ভালো নয়। দিন দিন অবনতি হচ্ছে। বিষয়টি জানাতে তার নেতৃত্বাধীন একটি প্রতিনিধিদল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন।

ফখরুল বলেন, তাদের নেত্রীকে (খালেদা জিয়া) যেন দ্রুত বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয় সেজন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। তাদের নেত্রীর পছন্দের ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য তাকে অনুরোধ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সাক্ষাৎকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাদের বলেছেন, দায়িত্বে থাকা মন্ত্রণালয়ের সচিব ও আইজি প্রিজনসহ অন্যান্যদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত দেবেন। দেশের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তবে কবে ব্যবস্থা নেবেন সে বষয়ে বিএনপির মহাসচিব সুনির্দিষ্টভাবে কিছুই বলতে পারেননি তিনি। তবে রোববারই সভা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড নিয়ে গত ৮ থেকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কারাগারে বন্দি রয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

কারাবন্দি অবস্থায় খালেদা জিয়া অসুস্থ হলে তার চিকিৎসার জন্য সরকার বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর মেডিকেল বোর্ড জানিয়েছিল তার অবস্থা গুরুতর নয়। পরে মেডিকেল বোর্ডের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শে এক্সরে পরীক্ষা করতে গত ৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেওয়া হয়।