চট্টগ্রাম নগরীতে গণপরিবহন সংকট: যাত্রীদের ভোগান্তি

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: পুলিশের বিশেষ অভিযান, জেলা প্রশাসন ও বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের খবর শুনে চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক থেকে ফিটনেসবিহীন গণপরিবহন ও অন্যান্য গাড়িগুলো হঠাৎ উধাও হয়ে যাওয়ায় হাজার হাজার শিক্ষার্থীসহ যাত্রী সাধারণ চরম ভোগান্তিতে পড়ে।

অভিযান চলাকালে গাড়ির কাগজপত্র সঠিক না থাকায় ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতিত গাড়ি চালানোর অপরাধে মোটরসাইকেল, টেক্সি, টেম্পো ও বাসসহ মোট ১২৯টি গাড়ি জব্দ এবং ৪৫৮টি মামলা রুজু করেছে সিএমপি’র ট্রাফিক উত্তর ও বন্দর জোন। গতকাল বুধবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) উদ্যোগে নগরীর নিউমার্কেট, টাইগারপাস ও আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড়ে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

জানা গেছে, সিএমপি’র ট্রাফিক-উত্তর জোনের পক্ষে গতকাল বুধবার নগরীর নিউমার্কেট ও টাইগারপাস এলাকায় পুলিশের বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতিরেকে ও কাগজপত্রবিহীন গাড়ি চালানোর অপরাধে মোট ২২৪টি যানবাহনের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয় ও ফিটনেসবিহীন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ কাগজপত্র দিয়ে গাড়ি চালানোর অপরাধে জব্দ করা হয়েছে মোটর সাইকেল, টেক্সি, টেম্পু, হিউম্যান হলার, বাস ও অন্যান্য গাড়িসহ ৭২টি বিভিন্ন ধরনের গাড়ি।

ট্রাফিক-বন্দর জোনের অভিযানে একই অপরাধে ২৩৪টি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয় ও ফিটনেসবিহীন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ কাগজপত্র দিয়ে গাড়ি চালানোর অপরাধে মোট ৫৭টি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া নগরীর বিভিন্নস্থানে জেলা প্রশাসন, বিআরটিএ’র ও পুলিশের বিশেষ অভিযানের খবর পেয়ে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে চলাচলরত বাস, টেম্পু, হিউম্যান হলারসহ বিভিন্ন গণপরিবহনগুলো হঠাৎ সড়ক থেকে উধাও হয়ে যাওয়ায় গণপরিবহন সংকট পড়ে স্কুল-কলেজ-বিশ্ব বিদ্যালয়ের হাজার হাজার শিক্ষার্থী ও যাত্রী সাধারণ।

গতকাল বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নগরীর ব্যস্ততম সড়ক জিইসি মোড়, আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড়, টাইগারপাস, ষোলশহর ২নং গেইট, চকবাজার ও বারিক বিল্ডিং এলাকায় যাত্রীরা গাড়ির জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকে। গাড়ির জন্য যাত্রী সাধারণকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। যেসব গণপরিবহন সড়কে চলাচল করেছে তা যাত্রীদের প্রয়োজনের তুলনায় ছিল অতি নগণ্য।

প্রিন্স, ঢাকা