আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

কেন্দুয়া, নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনার কেন্দুয়ার পৌরসভার ০১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর অঞ্জন সরকারকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ছাত্রলীগ নামধারী নেতা ইলিয়াস কাঞ্চন ফেরদৌস সহ তার লোকজন। সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটে সোমবার সকাল অনুমান ১০টার দিকে পৌর এলাকার আদমপুর মহল্লায়।

এ ঘটনায় অঞ্জন সরকারের ভাই রিটন সরকার বাদী হয়ে ছাত্রলীগ নামধারী নেতা ইলিয়াস কাঞ্চন ফেরদৌস সহ মানিক, মতিন, রুকন, ও রুপ্তনের বিরুদ্ধে সোমবার রাতে কেন্দুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ইলিয়াস কাঞ্চন ফেরদৌসকে সোমবার দুপুরে আটক করে মঙ্গলবার সকালে তাকে নেত্রকোনা আদালতে পাঠিয়েছে ।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ইলিয়াস কাঞ্চন ফেরদৌস অঞ্জন সরকারের ওপর হামলার দায় স্বীকার করেছে। এদিকে আদালতে ইলিয়াস কাঞ্চন ফেরদৌসের জামিনের আবেদন করা হলে আদালতের বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। আওয়ামীলীগ নেতা ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ পৌরশাখার সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অঞ্জন সরকারকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন এর তীব্র নিন্দা ও জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করছেন।

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ কেন্দুয়া উপজেলা শাখার আহবায়ক অধ্যাপক দুলাল কান্তি চৌধুরী ও পৌর শাখার সভাপতি জয়ন্ত পোদ্দারের নেতৃত্বে অন্যান্য সদস্যরা মঙ্গলবার বিকালে অঞ্জন সরকারের গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সান্তনা জানান। এসময় অঞ্জন সরকারের স্ত্রী শিল্পী রাণী সরকার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তার দাবী করেন। একই সঙ্গে তিনি স্বামীর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

প্রিন্স, ঢাকা