স্বদেশ ফোরামের আয়োজনে ছড়া-কবিতা ও আলোচনা সভা

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিউজ:আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবীর জেনারেল ওসমানীর অবদান জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ রাখবে। বাংলাদেশে বঙ্গবীর একজনই, তিনি হলেন মুক্তিবাহিনীর সর্বাধিনায়ক বীর সেনানী জেনারেল এমএজি ওসমানী।

মা-মাটি ও লাল সবুজ পতাকার জন্য মহান মুক্তিযুদ্ধে যিনি জীবন বাজী রেখেছিলেন, সেই বীরের আত্মজীবনী বাংলাদেশের পাঠ্যপুস্তকে অর্ন্তভূক্ত করা সহ জাতীয় পর্যায়ে মর্যাদা দিতে হবে। তিনি গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিলেন আজীবন। যা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে ইতিহাসে।খবর বাপসনিঊজ। মুক্তিৎাহিনীর সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর জেনারেল এমএজি ওসমানীর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে নিউইয়র্ক এর সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন স্বদেশ ফোরামের ছড়া-কবিতা পাঠ ও আলোচনা সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

গত ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৮ শনিবার বিকেলে নিউইয়র্ক এর জ্যাকসন হাইটস এর ইত্যাদি গার্ডেন রেষ্টুরেন্টের ২য় তলায় আয়োজিত ছড়া-কবিতা পাঠ ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বদেশ ফোরাম এর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কবি অবিনাশ চন্দ্র আচার্য।

প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিশু সাহিত্যিক হাসানুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমদ, বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এডভোকেট শেখ আকতার উল ইসলাম, বাপসনিঊজ এজিটর সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন,বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি পরিষদ ইউএসএ এর সভাপতি নজমুল ইসলাম চৌধুরী,কবি-অধ্যাপক মোখলেসুর রহমান, বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি পরিষদ ইউএসএ এর সাধারণ সম্পাদক হাজী আব্দুর রহমান ও জালালাবাদ ল’সোসাইটি ইউএসএ-এর সভাপতি এডভোকেট এমাদ উদ্দিন ও বাংলাদেশ থেকে আগত বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ছড়াকার মেহেদী কাবুল।

স্বদেশ ফোরাম এর সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সুফিয়ান আহমদ চৌধুরীর পরিচালনা ও উপস্থাপনায় কবিতা-ছড়া পাঠ ও আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা নূর-ই-আলম বাবু, মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলী খান, সাংবাদিক মুজাহিদ আনসারী, বালাগঞ্জ ওসমানী নগর এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আজিজ আহমদ ছালিক, সমাজসেবী গোলাম কিবরিয়া অনু, ব্যাংকার সিরাজ উদ্দিন আহমদ, সমাজসেবী সৈয়দ সিদ্দিকুল হাসান, ব্যাংকার সৈয়দ মুজিবুর রহমান, কবি দেওয়ান নাসের রাজা, কবি মোহাম্মদ আব্দুল জলিল, কবি হাফিজ উদ্দিন, সমাজসেবী সৈয়দ আলী আশরাফ, কবি আবুল বাশার প্রমুখ। সভাশেষে উপস্থিত সকলকে মিষ্টিমুখে আপ্যায়িত করা হয়।

সবার প্রারম্ভে ১৯৭৫-এর ১৫ আগষ্ট স্বপরিবারে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, কেন্দ্রিয় কারাগারে চার জাতীয় নেতা, একাত্তর-এর মুক্তিযুদ্ধ ও ১৯৫২- এর মহান ভাষা আন্দোলনসহ আজ পর্যন্ত সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নিহতদের স্মরনে সভায় দাঁড়িয়ে এক মিনটি কাল নিরাবতা পালন করা হয়। শেষে নৈশভোজে সবাইকে আপ্যায়ন করা হয়।

প্রিন্স, ঢাকা