সবাইকে ‘সাহেব’ বলে ডাকতেন বঙ্গবন্ধু

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেছেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যার জন্য কারাগারে গেছেন, যে ব্যক্তি সারাজীবন বঙ্গবন্ধুর ক্ষতি করে গেছেন তাকেও ‘জনাব, সাহেব’ ডেকে সম্মান দিয়েছেন। তিনি মানুষকে সম্মান করতে জানতেন। আমি তার অনেক লেখা পড়েছি। সেখানে মানুষকে সম্মান দেওয়ার বিষয়টি পেয়ে আমি অভিভূত হয়েছি।

গতকাল বুধবার বেলা ১২টার দিকে নগরীর বাদশা মিঞা সড়কের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের আর্ট গ্যলারিতে পাভেল রহমানের ক্যামেরায় ‘বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক আলোক চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই যে শ্রদ্ধাবোধ, মানুষকে সম্মান দেওয়ার বিষয় এটি কম মানুষেরই আছে। বর্তমানে রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে তেমন দেখি না। বঙ্গবন্ধু কখনও বলেননি-এই লোক আমার বিরোধিতা করেছে, তাকে দেখে নিতে হবে, প্রতিশোধ নিতে হবে।

মো. আবদুল মান্নান বলেন, কিছু কারণে নতুন প্রজন্ম এখনও বিভ্রান্ত। এমনকি কোনো কোনো পরিবার তাদের সন্তানকে সঠিক ইতিহাস শেখাতে পারছে না। বাংলাদেশ, বাঙালি জাতি এবং এই অভ্যুদয়ের ইতিহাসের মূল কারিগর কারা? এসব সঠিক ইতিহাস সন্তানদের জানতে দিতে পারিনি। এখন সুযোগ এসেছে সন্তানদের সঠিক ইতিহাস জানানোর।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত আলোকচিত্রী-সাংবাদিক পাভেল রহমানের তোলা বঙ্গবন্ধুর নানা ছবি নিয়ে চারুকলা আর্ট গ্যালারিতে পাভেল রহমানের ক্যামেরায় ‘বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক তিন দিনব্যাপী এ চিত্র প্রদর্শনী আয়োজন করে। এ চিত্র প্রদর্শনী চলবে আগামীকাল ৩১ আগস্ট শুক্রবার পর্যন্ত। আলোকচিত্র প্রদর্শনী সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর এসব ছবি দেখলে মনে হয়-এই-তো তিনি কথা বলছেন। পাভেল রহমান এসব ছবি তোলার কারণে নতুন প্রজন্মের কাছে শ্রদ্ধার পাত্র হয়ে থাকবেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘কারাগারের রোজনামচা’ বইটির প্রচ্ছদ আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়েছি। এ বইটির প্রচ্ছদের ছবি আমাদেরই রাসেল কান্তি দাশের। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার ও চারুকলা অনুষদের ডিন নিসার হোসেন।

প্রিন্স, ঢাকানিউজ২৪