দোষিদের শাস্তির দাবিতে সচেতন নাগরীক সমাজের মানববন্ধন

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবা নিতে এসে, কোন সেবা না পেয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের সামনে একটি কামরাঙ্গা গাছের নিচে ঘাসের উপর জনসম্মুখে সন্তান প্রসব করার ঘটনায়, দোষি নার্সদের শাস্তি দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রংপুর বিভাগীয় পরিচালক ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

এদিকে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দির্ঘদিন থেকে চলে আসা অনিয়ম ও দায়িত্বরত নার্সদের অবহেলা ও গত ১২ তারিখের ঘটনায় দোষি নার্সদের শাস্তি দাবীতে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত এক ঘন্টা ব্যাপী, স্থানীয় নিমতলা মোড়ে মানব বন্ধন করেছেন সচেতন নাগরীক সমাজ। মাববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। সেখানে তদন্ত করতে আসা রংপুর বিভাগীয় পরিচালক ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান দোষি নার্সদের সাস্তি ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রে দির্ঘদিন থেকে চলে আসা অনিয়ম বন্ধ করার আশ্বাস দেন। মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক সমাজের আহবায়ক আরিফ খান জয়, সিপিবি ফুলবাড়ী শাখার সাধারন সম্পাদক এসএম নুরুজ্জামান জামান, নাগরিক সমাজের নেতা হামিদুলহক প্রমুখ।

গতকাল মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর প্রধান কার্যালয় এর মহাপরিচালক কতৃক গঠিত রংপুর বিভাগীয় পরিচালকের নেতৃত্বে তিন সদস্যর একটি তদন্ত কমিটি। তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক ডাঃ আবু জাফর ও সহকারী পরিচালক ডাঃ মাহাবুর রহমান। তারা ভুক্তভোগী প্রসুতিসহ স্থানীয় বাসীন্দাদের সাথে কথা বলেন।

উল্লেখ্য ফুলবাড়ী উপজেলা পার্শবর্তি পার্বতীপুর উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের বাঁশপুকুর গ্রামের বাসীন্দা রিক্সা চালক আবু তাহেরের স্ত্রীর রিনা বেগম (৩৩) প্রসব ব্যাথা শুরু হলে,গত রোববার (১২ আগষ্ট) ভোর সাড়ে ৫টায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে নিয়ে আসলে এ ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচার হলে, ওইদিন (১২ আগষ্ঠ) পওরের দিন (১৩আগষ্ঠ) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার এর নেতৃত্বে দিনাজপুর সিভিল সার্জন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর নেতৃত্বে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক এর কার্য্যলয় থেকে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। একই দিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, রংপুর বিভাগীয় পচিালক ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমানকে আহবায়ক করে একটি উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠন করে।

প্রিন্স, ঢাকা