ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট মাদুরোর ওপর ড্রোন হামলা

নিউজ ডেস্কঃ ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট ও বামপন্থী নেতা নিকোলাস মাদুরো ড্রোন হামলার শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় সাত সেনা সদস্য আহত হয়েছেন। তবে অক্ষত রয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

রাজধানী কারাকাসে সামরিক বাহিনীর ৮১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময়ে এ হামলা হয় বলে জানান দেশটির যোগাযোগমন্ত্রী জর্জ রদ্রিগেজ।

তিনি বলেন, দুটি ড্রোনে বিস্ফোরক নিয়ে এ হামলা করা হয়। যা প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে হত্যার উদ্দেশ্যে চালানো হয়। হামলার জন্য দেশটির ডানপন্থী বিরোধীদলকে দায়ী করেছেন তিনি।

টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, খোলা মাঠে সামরিক বাহিনীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময়ে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো ও অন্য কর্মকর্তারা হঠাৎ করে উপরের দিকে তাকিয়ে সচকিত হয়ে ওঠেন। এসময় ছোটাছুটি শুরু করে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়ানো সেনা সদস্যরা। বড় ধরণের বিস্ফোরণের শব্দও শোনা যায় তখন।

যোগাযোগমন্ত্রী রদ্রিগেজ জানিয়েছেন হামলার পর প্রেসিডেন্ট তার মন্ত্রীসভার সদস্য ও সামরিক বাহিনীর কমান্ডারদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

এদিকে হামলার বিষয়ে সরকারের ভাষ্য-বিরোধী বক্তব্য দিয়েছে দমকল বাহিনী। নাম না প্রকাশের শর্তে তিন দমকল কর্মী বার্তা সংস্থা এপিকে জানিয়েছে, কোন ড্রোন নয়, আদতে ঘটনাস্থলের নিকটে অবস্থিত এক বাড়িতে একটি গ্যাস ট্যাঙ্ক বিস্ফোরিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মে মাসে ভেনেজুয়েলায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে বিজয়ী হন মাদুরো। খবর: বিবিসি