ছাত্ররা যা করতে পেরেছে তা মাইল ফলক হয়ে থাকবে: এরশাদ

নিউজ ডেস্ক: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ছাত্র আন্দোলনকে পুঁজি করে কোনো স্বার্থন্বেষী মহল যেন ফায়দা লোটার চেষ্টা করতে না পারে তার জন্য সকল মহলকে আমি সতর্ক থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।

আমি আশা করি আমাদের সন্তানরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে যা করতে পেরেছে- তা একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে এবং এই মাহাত্ম বজায় থাকতেই তারা ক্লাসে ফিরে যাবে। আমি অভিভাবকদের প্রতিও আহ্বান জানাই- আপানারা আপনাদের সন্তানকে ঘরে ফিরিয়ে নিন এবং তাদের ক্লাসে পাঠিয়ে দিন। শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানাই আপনারা আপনাদের ছাত্রছাত্রীদের ক্লাসে ফিরিয়ে আনুন। এই ছাত্র আন্দোলনকে অজুহাত করে যে পরিবহণ ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করার জন্যও আহ্বান জানাচ্ছি।

আজ রবিবার জাতীয় পার্টির (এ) চেয়ারম্যানের কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ সব কথা বলেন।
বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, কোনোভাবে এই আন্দোলন রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হলে মূল আন্দোলনের মাহাত্মটাই বিলন হবে। ইতোমধ্যে আমরা একটি রাজনৈতিক দলের এক নেতার উস্কানিমূলক বক্তব্য শুনেছি- অনেক গুজব শুনেছি। অতএব শিক্ষার্থীদের সেইসব উস্কানি বা গুজবে কান দিয়ে বিভ্রান্ত হওয়া ঠিক হবে না।

তিনি বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের প্রতি আমি পূর্ণ সমর্থন জানাই। এই দাবি এদেশের মানুষের প্রাণের দাবি। এই দাবি আদায়ে আমাদের কোমলমতি ছাত্রছাত্রীরা রাজপথে নেমে যে প্রতিবাদ জানিয়েছে এবং শান্তিপূর্ণভাবে রাস্তায় অবস্থান নিয়ে যেভাবে দাবি আদায় করে নিয়েছে- তার জন্য তাদের অভিনন্দন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার্থীদের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে কাল বিলম্ব না করে তাদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন- তার জন্য প্রধানমন্ত্রীকেও আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। এখন শিক্ষার্থীদের আমি অবিলম্ববে রাজপথ ছেড়ে ঘরে এবং ক্লাসে ফিরে যাবার অনুরোধ জানাচ্ছি। কারণ এরপরেও তারা রাজপথে অবস্থান করলে কারও জন্য মঙ্গলকর কিছু হবে না। আমি মনে করি শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে যা করেছে তা যথেষ্ট। আমার বিশ্বাস এই নতুন প্রজন্ম আগামী দিনে দেশের দায়িত্ব গ্রহণ করে দেশকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারবে। এই দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাসের পর আর তাদের রাস্তায় থাকা এবং যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের কাজ করা ঠিক হবে না।