গুজব ছড়ানোর অভিযোগ স্বীকার করলেন কাজী নওশাবা

নিউজ ডেস্ক:  জিগাতলায় সংঘর্ষ নিয়ে ফেসবুক লাইভে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ অভিযোগ স্বীকার করেছেন। আন্দোলনরত স্কুলছাত্র রুদ্রের কাছ থেকে ফোনে তথ্য পেয়ে শ্যুটিংস্পট থেকে ফেসবুক লাইভে গিয়ে তিনি এ গুজব ছড়ান বলে নতুন এক ভিডিওতে দাবি করেছেন।

শনিবার দুপুরে ফেসবুক লাইভে আসা এই অভিনেত্রীকে রাতে উত্তরা থেকে আটক করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

জানা যায়, রুদ্র মোবাইলফোনের মাধ্যমে নওশাবাকে জানায় জিগাতলায় নিহতের খবর। এরপরই উত্তরার একটি শ্যুটিংস্পট থেকে ফেসবুক লাইভে যান তিনি। মোবাইলফোনে শোনা কথাগুলোই ফেসবুক লাইভে বলার পর সবাইকে রাস্তায় নেমে আসারও আহ্বান জানান নওশাবা। মিথ্যা তথ্য ও গুজব ছড়ানোর বিষয়টি র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারও করেছেন কাজী নওশাবা আহমেদ।

রাতে র‌্যাব সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন র‌্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান।

তিনি বলেন, ‌জিগাতলার ঘটনা নিয়ে নওশাবা ফেসবুক লাইভে গেলেও ঘটনাস্থলে তিনি ছিলেন না। ছিলেন উত্তরার একটি শুটিং স্পটে। সেখান থেকেই মোবাইলফোনে আসা খবরে তিনি ফেসবুক লাইভে যান। তিনি ফোনে যা শুনেছেন তাই ফেসবুক লাইভে ছড়িয়ে দিয়েছেন। তার সেই গুজব মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। যে কারণে দ্রুত গুজব আরও ছড়িয়ে পড়ে। নওশাবা কে যেকোন সময় আদালতে হাজির করা হবে বলে জানা গেছে।