শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্বার্থান্বেষী মহল ভিন্নখাতে নিচ্ছে: কমিশনার

নিউজ ডেস্ক: ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ‘কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনের সফলতা কোনো কোনো স্বার্থান্বেষী মহল ভিন্নখাতে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আন্দোলনকে রাজনৈতিকীকরণ করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। ইতোমধ্যে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ছদ্মবেশে অনেকে ঢুকে পড়েছে। টেইলার্সে অর্ডার দিয়ে স্কুল-কলেজের ড্রেস বানানো হচ্ছে, কারা বানাচ্ছে এসব তা নিয়ে গোয়েন্দারা কাজ করছে।’

শনিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলন এসব কথা বলেন কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের প্রতি সরকারের যেমন নৈতিক সমর্থন আছে তেমনি পুলিশেরও নৈতিক সমর্থন আছে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ট্রাফিক শৃঙ্খলা ফেরাতে পুলিশকে নৈতিক ভিত্তি দিয়েছে।’

আইনের কঠোর প্রয়োগের মাধ্যমে সড়কে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় রোববার থেকে সারাদেশে ট্রাফিক সপ্তাহ পালন করা হবে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘ফিটনেসবিহীন গাড়ি, লাইসেন্সবিহীন চালক, ফুটপাত দিয়ে মোটরসাইকেল চালনোসহ ট্রাফিকের সকল অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে ট্রাফিক সপ্তাহে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর আগেও এ ধরনের কর্মসূচিতে গার্লস গাইড ও স্কাউটদের সহায়তা নিতো পুলিশ। এবারের ট্রাফিক সপ্তাহে যদি সাধারণ শিক্ষার্থীরা সহায়তা করে তাহলে সাধুবাদ জানাবো।’

শিক্ষার্থীদের ঘরে ফেরার আহ্বান জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘আন্দোলনের মর্মার্থ বুঝতে পেরেছি, শিক্ষার্থীদের অনুরোধ করবো ঘরে ফিরতে।’