চট্টগ্রাম নগরীতে বৃক্ষমেলায় ৪ দিনে ৫০ হাজার চারা বিক্রয়

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: লাগাতার বৃষ্টির মধ্যেও চট্টগ্রাম নগরীর লালদিঘী ময়দানে বৃক্ষমেলায় ক্রেতা দর্শকের ভিড়। বন বিভাগের তথ্যকেন্দ্র সূত্রমতে, বিভিন্ন নার্সারীতে ৪ দিনে প্রায় ৫০ হাজারেরও অধিক বিভিন্ন প্রজাতির চারা বিক্রয় করা হয়েছে। বনরূপা নার্সারী সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন প্রকৃতর আ¤্রপালি চারার চাহিদা বেশী।

চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের নিয়ন্ত্রণ ও তথ্য কেন্দ্র, পুলিশ কন্ট্রোলরুম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, বাংলাদেশ বন গবেষণা ইনস্টিটিউট, বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, ছাড়াও বনরূপা নার্সারী, ন্যাশনাল নার্সারী, বাহাদুর নার্সারী, পুষ্পকলি নার্সারী, ফতেয়াবাদ নার্সারী, বনসাই বাড়ী, সবুজ বিপ্লব নার্সারী, ব্র্যাক নার্সারী, চিটাগাং নার্সারী, পুষ্প নার্সারী, চন্দন নগর বনফুল নার্সারী, কসমো নার্সারী, আর.এন.জে নার্সারী, নিউ কসমো নার্সারী, চট্টগ্রাম বাগান পরিবার, এইচ বি আর নার্সারী, সবুজ চট্টগ্রামসহ সরকারী, বেসরকারী ৫০ টি স্টল স্থাপন করা হয়েছে।

মেলায় চার দিনে ১৬ হাজার ৫ শত ৫০ টি বনজ, ১৫ হাজার ৪ শত ৮০ টি ফলদ, ৪ হাজার ৫ শত ১০ টি ঔষধি বা ভেষজ, ৬ হাজার ৭ শত ৩০ টি শোভা বর্ধক ও অন্যান্য ৭ হাজার ২ শতটি অন্যান্য লতা, গুল্ম, অর্কিড, ক্যাকটাস শ্রেনীর চারা বিক্রয় হয়েছে। বনসাই বাড়ী নার্সারীর স্বত্ত¡াধীকারী জাকারিয়া জানান, বনসাই চারার চাহিদা আছে। মেলার জন্য চারার দামও কম রাখা হয়েছে। আর এন জে নার্সারীর বিক্রেতা জানান, চারার সাথে সাথে জৈব সারও তারা বিক্রয় করছেন।

বন বিভাগের তথ্যকেন্দ্রে দায়িত্বরত রেঞ্জ কর্মকর্তা অরুন বরন চৌধুরী ফরেস্ট রেঞ্জার জানান, বৃষ্টির কারনে ক্রেতা দর্শকদের সাময়িক অসুবিধা হলেও লোক সমাগমের কমতি নেই। মেলায় বন বিভাগের আকর্ষণীয় মডেলে পাহাড়, জনপদ, ঝুম, লেক্স, মৎস্য চাষ, বিভিন্ন বাগান, কেবল কার, বন্যপ্রাণী দর্শকদের আকৃষ্ট করছে। বাংলাদেশ বন গবেষণা ইনস্টিটিউট এর বাঁশ চাষ পদ্ধতি ও নির্মাণ কৌশল মডেল এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর ফলদ প্রদর্শণী, বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভিন্ন পশু-পাখির মমি প্রদর্শণী মেলায় আগত দর্শক ও ক্রেতাদের মুগ্ধ করছে।

শহর রেঞ্জ কর্মকর্তা রেজাউল আলম জানান, ফরেস্ট রেঞ্জার জানান, এ বৃক্ষমেলায় বনজ, ফলদ, শোভাবর্ধণকারী, বনসাই, লতা, গুল্ম, অর্কিড, ক্যাকটাস, কলমচারাসহ বেশ কিছু বিরল, বিলুপ্তপ্রায় দেশী-বিদেশী প্রজাতির চারা আছে। এ মেলা প্রতিদিন সকাল হতে রাত ৯ টা পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকে।

২৯ জুলাই চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের উদ্যোগে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং জেলা প্রশাসনের সহায়তায় লালদিঘী ময়দানে ১৫ দিন ব্যাপী বৃক্ষমেলার শুভ উদ্বোধন করা হয়।

প্রিন্স, ঢাকা