নাটোর ও রাজশাহীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-২

নিউজ ডেস্কঃ র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নাটোরের বড়াইগ্রামে কাবিল হোসেন (৪৫) ও রাজশাহীর পুঠিয়ায় আব্দুর রশিদ নামের দুই মাদকব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার মাঝরাতে নাটোর উপজেলার মহিষভাঙ্গা এলাকার কমিউনিটি ক্লিনিকের পাশে এবং পুঠিয়া উপজেলার তাড়াশ উত্তরপাড়া গ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ দু’টি ঘটে।

নাটোর: র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের স্কোয়াড কমান্ডার ও সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আজমল হোসেন জানান, রাতে র‌্যাবের একটি টহল দল বড়াইগ্রামের মহিষভাঙ্গা এলাকায় সড়কে টহল দিচ্ছিল। এ সময় দ্রুতগতিতে চলে যেতে থাকা একটি মোটরসাইকেলকে গতিরোধ করার চেষ্টা করা হয়। একই সময়ে ওই এলাকার মহিষভাঙ্গা কমিউনিটি ক্লিনিকের পাশে সন্দেহজনক কিছু লোকের আনাগোনা দেখতে পেয়ে ওই স্থানের দিকে অগ্রসর হতে থাকে টহল দল। একপর্যায়ে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় তাদের স্যারেন্ডারের নির্দেশ দেওয়া হলে তারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব পাল্টা গুলি ছুড়লি ঘটনাস্থলে একজনকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় এবং বাকিরা পালিয়ে যান। পরে আহত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত দুই র‌্যাব সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, পিস্তলের গুলির খালি খোসা, ২৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও দুইটি টর্চলাইট উদ্ধার করা হয়। বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলিপ কুমার দাস জানান, নিহত ব্যাক্তির নাম কাবিল হোসেন। সে উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চরগোবিন্দপুর গ্রামের মৃত শহিদুল্লাহ ওরফে শহিদুলের ছেলে। তার বিরুদ্ধে থানায় মাদক সংক্রান্ত ১৩টি মামলা রয়েছে।

পুঠিয়া: রাজশাহী র‌্যাব-৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর এএম আশরাফুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার রাতে র‌্যাবের একটি দল রাজশাহী মহানগরের তাড়াস উত্তরপাড়া এলাকায় টহলে যায়। এক পর্যায়ে সেখানকার একটি আমবাগানে টর্চের আলো ও কিছু লোকের আনাগোনো দেখে তারা সেদিকে এগিয়ে যায়। এ সময় দলটি র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করে। র‌্যাব সদস্যরা তাদের ধরতে গেলে তারা গুলি ছুড়তে থাকে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এক পর্যায়ে দলটি পিছু হটে পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। র‌্যাব সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্যকে আহত হয়েছে। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল, ৫৮ বোতল ফেন্সিডিল ও মাদক কারবারীদের ব্যবহৃত জিনিসপত্র জব্দ করা হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পরিচয় পরে জানা গেছে। তার নাম আব্দুর রশিদ। সে পুঠিয়া উপজেলার ভরুয়াপাড়া উত্তরপাড়া গ্রামের আলীম উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদক সংক্রান্ত ১৭টি মামলা রয়েছে।