শোকাবর আগষ্টের প্রথম দিনে কেন্দ্রিয় স্বেচ্ছাসেবকলীগের আলোর মিছিল

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে শোকের মাস হিসেবে আজ বুধবার রাত ১২ টা এক মিনিটে শত শত মোমবাতি জ্বালিয়ে ঈশ্বরদী শহরে আলোর মিছিল বের করা হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রিয় সংসদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন আলোর মিছিলের নেতৃত্ব দেন।

ঈশ্বরদী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইছাহক আলী মালিথার সভাপতিত্বে আলোর মিছিলে এসময় উপস্থিত ছিলেন ঈশ্বরদী পৌর আ’লীগের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি ইমরুল কায়েস দারা, ছলিমপুর ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক নায়েক (অবঃ) আব্দুল কাদের, মুলাডুলি ইউনিয়ন আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর রহমান ফান্টু মন্ডল, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক জোয়াদ্দার, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাবুদ্দীন আলী সাহা, আওয়ামীলীগ নেতা সূর্য প্রামানিক, মুলাডুলি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মিলন খন্দকার, মুলাডুলি ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক কবির মালিথা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ঐক্যমঞ্চ ঈশ্বরদী শাখার যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মতিন হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক সজিব মালিথা, সলিমপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান স্বপন, ঈশ্বরদী পৌর ৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আলী, ঈশ্বরদী উপজেলা বাস্তহারালীগের সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাধারন সম্পাদক পলাশ মাহমুদ, যুবলীগ নেতা মাজদার হোসেন মকিম, যুবলীগ নেতা পিন্টু সোহাগ মাহমুদ সজল বিশ্বাস, আসিব বিশ্বাস ও আশিকুর রহমান রুপম। আলোর মিছিল কলেজ রোডের মালিথা মোড় থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে রেলগেটস্থ কেন্দ্রিয় শহিদ মিনারে গিয়ে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

রফিকুল ইসলাম লিটন তার বক্তব্য বলেন, সমকালিন যুগে সর্বকালের হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি সোনার মানুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এদেশের একদল পথভ্রষ্ট সেনা সদস্য ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টে স্বপরিবারে হত্যা করে কলঙ্কিত অধ্যায়ের সৃষ্টি করেছিল।

এ দেশকে যখন তলাবিহিন ঝুঁড়ি থেকে উন্নয়নের পথে ধাবিত করতে যাচ্ছিল ঠিক সেই মূহুর্তই বঙ্গবন্ধু হত্যার মধ্য দিয়ে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা উন্নয়নের রুপকার দেশরত্ন জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করে সেই কলঙ্কিত অধ্যায়ের সমাপ্তি টেনেছে। এই আগষ্ট মাস হচ্ছে আমাদের আওয়ামীলীগ পরিবারের জন্য শোকের মাস। মাস ধরে আমরা কালো ব্যাচ ধারণ করে রাখবো। আজ শোকাবর আগষ্টের প্রথম প্রহরে আলোর মিছিল করে অন্ধকার থেকে দেশকে আলোকিত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এদেশ থেকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ রুখতে আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের সজাগ থাকতে হবে। দেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বিশ্ব নন্দিত মানবতার নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ এখন শুধুই একটি দেশের নাম নয়।

বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে হাঁটছে। আর এই উন্নয়ন ধারা ধরে রাখতে ও আরও বেগমান করতে আবারও নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানান বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাবেক জনপ্রিয় ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম লিটন।