কুমিল্লার তিতাসের উপজেলা চেয়ারম্যান ধানমন্ডি থেকে নিখোঁজ

নিউজ ডেস্কঃ কুমিল্লার তিতাসের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও কুমিল্লা (উত্তর) জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পারভেজ হোসেন সরকারকে কে বা কারা জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে নিয়ে গেছে।

শুক্রবার দুপুর ২টায় ধানমন্ডির লালমাটিয়া এলাকার ২৭ নম্বর রোডের ৩০ নম্বর বাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তিনি জুমার নামাজ শেষে বাসায় ফিরছিলেন। ঘটনার পরেই আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আশেপাশের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেছে।

পারভেজ হোসেনের মামা কামরুল হোসেন সিসি ক্যামেরার ফুটেজের বরাত দিয়ে বলেন, পাশের বিল্ডিং এর সিসি ক্যামেরায় দেখা যায়, পারভেজ মসজিদ থেকে বের হয়ে তার বাসার দিকে যাচ্ছে। সে বাসার সামনে আসার পর একটি লোক তার সঙ্গে করমোর্দন করেন এবং অপরজন তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। তখন পারভেজ তাদের সঙ্গে জোরাজুরি করে। এ সময় পাজারো থেকে এবং পাশ থেকে একাধিক হোন্ডার লোক এসে তাকে জোর করে গাড়িতে তুলে নেয়। গাড়িটি কালো (ঢাকা-মেট্রো-ঘ-১৪-২৫৭৭) পাজারো। পারভেজ হোসেন সরকার ৮ বছর ধরে ধানমন্ডি ২৭ নম্বর রোডের ৩০ নম্বর বসতি রেজিনার ৫ম তলার ভাড়া বাসায় দু’ছেলে ও স্ত্রী নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

পারভেজ হোসেনের স্ত্রী তাহমিনা আফরোজ মৌসুমী বলেন, জুমার নামাজের আযান দেয়ার পর সে কালো পাঞ্জাবী ও সাদা পায়জমা পড়ে নামাজের জন্য বের হয়। কিন্তু নামাজের পর নিচে লোকজনদের হট্টগোল দেখে নিচে গিয়ে জানতে পারি তাকে লোকজন উঠিয়ে নিয়ে গেছে। পারভেজ হোসেনের বড় ছেলে আবদুল্লাহ (৭) ও ছোট ছেলে আরহাম (৩) টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বেশ কিছু দিন ধরে অসুস্থ। দীর্ঘদিন ধরে তিতাসে রাজনীতিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পারভেজ হোসেন সরকারের সঙ্গে আরেকটি মহলের বিরোধ চলে আসছে।