‘আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন দুর্নীতিতে ভরা’

নিউজ ডেস্কঃ আর্জেন্টিনাকে খেলার ছন্দে ফেরাতে, পরবর্তী বিশ্বকাপে ভালো করতে দেশটির ফুটবল ফেডারেশনকে ঢেলে সাজাতে হবে। আর্জেন্টিনা ২০১৮ বিশ্বকাপে ফ্রান্সের বিপক্ষে ৪-৩ ব্যবধানে হেরে শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিয়েছে। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনকে দুর্নীতি মুক্ত হতে হবে। আর্জেন্টিনার ফুটবল কিংবদন্তি ডিয়াগো ম্যারাডোনা এমনটাই মনে করেন।

ম্যারাডোনা বলেন, ‘এমন একটা ঘর তৈরি করতে হবে যার ভিত খুব মজবুত হবে। বর্তমানে আর্জেন্টিনা ফুটবলের যে মাতৃভবন (এএফএ) তার অবস্থা দুর্যোগপূর্ণ।’ আর্জেন্টিনাকে ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জেতানো ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের পরিচালক এবং এর কিছু কর্মকর্তাদের সমালোচনা করেছেন। এমনকি দেশটির ফেডারেশনের সভাপতি ক্লদিও তাপিয়ার নতুন করে দায়িত্ব নেওয়ার ব্যাপারেও প্রশ্ন তুলেছেন ম্যারাডোনা।

ক্লদিও তাপিয়া আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি হন ২০১৭ সালের ২৯ মার্চ। ২০২১ সাল পর্যন্ত তিনি দেশটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন। এর আগেও তাপিয়া এএফএ সভাপতি ছিলেন। কিন্তু ২০১৬ সালে তাকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়। ফেডারেশনের দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তারা তাপিয়াকে আবার সভাপতির দায়িত্বে ফিরিয়ে এসেছেন বলেও মন্তব্য করেছেন ম্যারাডোনা।

ম্যারাডোনা এএফএ’র ভেতরের দুর্নীতি নিয়ে বলেন, ‘এটা হতে পারে ফেডারেশনের মধ্যে যারা দুর্নীতিগ্রস্ত তারা আবার সভাপতিকে ফিরিয়ে এনেছেন।’ আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন অবশ্য দারুণ কিছু সমস্যার মধ্যে আছে। বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর মেসি আর্জেন্টিনা হয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবেন কিনা তা এখনো নিশ্চিত করেননি। ওদিকে কোচের পদ থেকে হোর্হে সাম্পাওলিকে বরখাস্ত করার পরও নতুন কোচ নিয়োগের ব্যাপারে অগ্রগতি দেখাতে পারেনি এএফএ।