ভারতে রানওয়ে থেকে সরানো হলো ইউনাইটেডের বিমান

নিউজ ডেস্ক: ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্যের রায়পুরে স্বামী বিবেকানন্দ এয়ারপোর্টে তিন বছর ধরে পড়ে থাকা বাংলাদেশের একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের বিমান পার্কিং লট থেকে সরিয়ে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বিমানটির মালিকানা প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ বাংলাদেশ লিমিটেডের কাছ থেকে বকেয়া ফি আদায় করতে না পারায় এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিবেকানন্দ বিমানবন্দরের পশ্চিম পাশে সরিয়ে নেওয়া হয় বিমানটি।

স্বামী বিবেকানন্দ বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, বিমানটি সরানোর পুরো প্রক্রিয়াটি তদারকি করে এয়ারপোর্ট অথরিটি অব ইন্ডিয়া (এএআই)। রায়পুর এয়ারপোর্টের ম্যানেজার রাকেশ সহায়ের তত্ত্বাবধানে শুক্রবার দুপুরে বিমান সরানোর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এ সময় ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের অ্যাসিট্যান্ট ম্যানেজার (ইঞ্জিনিয়ারিং) ইনায়েত হোসেন ও অ্যাসিট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (কলকাতা) শুভঙ্কর ব্যানার্জিও উপস্থিত ছিলেন।

তারা আরও জানায়, বিমানটির পার্কিং ফি বাবদ ওই বিমানবন্দরের ৬০ লাখ রুপিরও বেশি বকেয়া পাওনা আছে। ইউনাইটেড এয়ারওয়েজকে বার বার তাগাদা দেওয়ার পরও তারা ওই ফি মেটাতে এবং বিমানটি ফিরিয়ে নিতে উদ্যোগ নেয়নি।

২০১৫ সালের ৭ আগস্ট ঢাকা থেকে ওমানের ম্যাস্কটগামী ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের বিমানে (ইউবিডি ৩২১) যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে রায়পুর বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে। পরে জানা যায়, বিমানটির ইঞ্জিনের একটি যন্ত্রাংশ উড়ন্ত অবস্থায় ভারতের বেমেতারা নামে একটি জায়গায় চাষের ক্ষেতে খুলে পড়ে। এরপর পাইলট নিকটবর্তী রায়পুর বিমানবন্দরে ইমার্জেন্সি ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি চান। অনুমতি মিললে যাত্রী ও বিমান কর্মীসহ মোট ১৬৫ জন আরোহী নিয়ে বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করে।

ত্রুটিপূর্ণ বিমানটি এরপর থেকে স্বামী বিবেকানন্দ এয়ারপোর্টের পার্কিং লটে পড়ে ছিল। এর মধ্যে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের কর্মকর্তারা কয়েকবার ঘুরেও গেছেও বিমানটি ফিরিয়ে নেওয়ার কোনো ব্যবস্থা হয়নি। ওই বিমানবন্দরে ব্যস্ততা বাড়ায় বিকল বিমানটি পার্কিং লট থেকে সরিয়ে বিমানবন্দরের পশ্চিম প্রান্তে অব্যবহৃত একটি জায়গায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। সূত্র: দ্য হিতাভাদা।

সূত্র: সমকাল