বাকৃবি অনুষ্ঠানস্থলে আগুন

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৭তম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের মঞ্চে ও প্যান্ডেলে আগুনে পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. নায়েরুজ্জামানকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৫ কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাত ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিটের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রুমের ফায়ারম্যান আব্দুল হালিম জানান, দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পুরো মঞ্চসহ প্যান্ডেলের সবকিছু পুড়ে গেছে। রাত ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে প্যান্ডেলে আকস্মিকভাবে আগুন লাগে। আগুনে প্রায় সাড়ে চার হাজার মানুষের জন্য রাখা চেয়ার-টেবিল, চারটি এলইডি স্ক্রিন বক্স পুড়ে গেছে।

রবিবার দুপুর ২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ হাওড় ও চর উন্নয়ন ইনিস্টিটিউট এর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৭তম বর্ষপুর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪ হাজার ৩শ’ গ্রাজুয়েট ও তাদের পরিবারের সদস্যদের এবারের বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা। তবে আগুনে প্যান্ডেল পুড়ে যাওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনে ৫৭বর্ষপুর্তি অনুষ্ঠান হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রধান অতিথি হিসেবে রাষ্ট্রপতি উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে আগুন কিভাবে লেগেছে তা খতিয়ে দেখার জন্য জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। বিশ্ববিদ্যালয় পক্ষ থেকেও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. নায়েরুজ্জামানকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৫ কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ তদন্ত কমিটির প্রধান হচ্ছেন- পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাছ উদ্দিন ভূঞা। তাদের তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।