৪ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-৪ জন

নিউজ ডেস্কঃ সারাদেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে কুষ্টিয়া ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন এবং দিনাজপুর ও কক্সবাজারে দু’দল মাদক ব্যবসায়ীর নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে দুইজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার গভীর রাতে ও শনিবার ভোরে এসব ঘটনা ঘটে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দাবি, নিহত চারজনই মাদক ব্যবসায়ী।

আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: জেলার ভেড়ামারা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শামসুদ্দিন শ্যাম (৩৮) নামে ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫শ পিস ইয়াবা, একটি ওয়ান শুটার গান, ২ রাউন্ড গুলি ও ২টি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় পুলিশের তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ভেড়ামারা বাকাপুলের কাছে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা’ ঘটে। পুলিশের ভাষ্য, শামসুদ্দিন শ্যাম এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় ৮টি মাদকের মামলা রয়েছে।

ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, রাত ৩টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর আসে ভেড়ামারা বাঁকাপুল চরদামুকদিয়া এলাকায় একদল মাদক ব্যবসায়ী মাদক কেনাবেচা করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি টিম সেখানে অবস্থান নেয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। উভয়পক্ষের গোলাগুলি শেষে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় শ্যাম নামে এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: পার্বতীপুরে দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে আব্দুর রহিম (৫০) নামে এক বক্তির মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ভোরে উপজেলার ডোমখালী ইটভাটার পাশে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত রহিম পার্বতীপুর পৌর শহরের পুরাতন বাজার রেলগেট মহল্লার নুন্নবীর ছেলে। পুলিশ বলছে, আব্দুর রহিম চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তারা বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা আছে।

পুলিশ জানায়, শনিবার ভোরে ডোমখালী ইটভাটার পাশে দুইদল মাদক ব্যবসায়ীর ‘বন্দুকযুদ্ধের’ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। পরে সেখানে আব্দুর রহিমকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পার্বতীপুর উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুন্দরপুরে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি র‌্যাবের। তবে তার নাম এখনও জানা যায়নি।

র‌্যাব-৫ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের ডেপুটি কমান্ডার আবু খায়ের জানান, শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে মাদকবিরোধী অভিযানে যায় র‌্যাবের একটি দল। সুন্দরপুর এলাকায় পৌঁছলে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে মাদক ব্যবসায়ীরা। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে গেলেও একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি: জেলার চকরিয়া উপজেলায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। শনিবার ভোরে উপজেলার চকরিয়া-লামা সড়কের চকরিয়া অংশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মোহাম্মদ ইসমাঈল (৩৮)। তিনি এলাকার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি পুলিশের।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, শনিবার গভীর রাতে চকরিয়া-লামা সড়কের চকরিয়া অংশে ফাঁসিয়াখালীস্থ কুমারি ব্রিজ এলাকায় দু’দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সেখান থেকে মাদক ব্যবসায়ী ইসমাঈলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।