লারার রেকর্ড ভাঙলেন কোহলি

নিউজ ডেস্ক:  ইংলিশদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ হেরে ভুলে যেতে বসা এক স্বাদ পেয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তবে দলের পরাজয়েও ব্যাটসম্যান কোহলি উঠে গেছেন ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ উচ্চতায়। অর্জন করেছেন ক্যারিয়ার সেরা রেটিং। এই অর্জনের পথে তিনি ভেঙেছেন ক্যারিবিয়ান গ্রেট ব্রায়ান লারার গড়া ২৫ বছর আগের রেকর্ড।

ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ে আগে থেকেই এক নম্বরে ছিলেন কোহলি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ভারতের ২-১ ব্যবধানে পরাজয়েও তার ব্যাট সেরা ফর্মই দেখিয়েছে। তিন ম্যাচে তিনি যথাক্রমে ৭৫, ৪৫ ও ৭১ রান করেছেন। আর তাতেই তার রেটিং পয়েন্ট বেড়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে পৌঁছেছে। কোহলির ওয়ানডে রেটিং পয়েন্ট এখন ৯১১। এটি গত ২৫ বছরে কোন ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্ট।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা জো রুটের পয়েন্ট ৮১৮। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে দুই সেঞ্চুরি করে চার ধাপ এগিয়েও কোহলির সঙ্গে তার পয়েন্ট ব্যবধান ৯৩ পয়েন্ট। তৃতীয় স্থানে থাকা পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান বাবর আজমের রেটিং পয়েন্ট ৮০৮। চার নম্বরে আছেন ভারতীয় ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা (৮০৬)। পঞ্চম স্থানে আছেন বল টেম্পারিং কাণ্ডে নিষিদ্ধ অজি ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার।

২৫ বছর আগে (১৯৯৩ সালে) ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা ৯০৮ পয়েন্ট অর্জন করেছিলেন। এর পরের দুই যুগেরও বেশি সময়ে শুধু দুই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স ও হাশিম আমলা ৯০০ পয়েন্ট ছুঁতে সক্ষম হয়েছেন। লারাকে ছাড়াতে পারলেও এখনও অনেকটা পথ পাড়ি দিতে হবে কোহলিকে। তার সামনে আছেন আরও পাঁচ সাবেক ক্রিকেট তারকা।

কোহলির চেয়ে বেশি রেটিং পয়েন্ট আছে- ডিন জোনস (৯১৮), ডেভিড গাওয়ার (৯১৯), গ্রেগ চ্যাপেল (৯২১), জহির আব্বাস (৯৩১), ভিভ রিচার্ডসের (৯৩৫)। এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্টের অধিকারী ক্যারিবিয়ান গ্রেট রিচার্ডসের কীর্তিটি ১৯৮৫ সালে গড়া। এই কীর্তি পেরোতে অনেকটা পথ পেরোতে হবে কোহলিকে। তবে সাবেক অজি ব্যাটসম্যান ডিন জোন্সের ১৯৯১ সালে গড়া ৯১৮ রেটিং পয়েন্ট ছাড়াতে হয়তো খুব বেশি দিন অপেক্ষায় থাকতে হবেনা ভারতীয় রানমেশিনের।

আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যান র‍্যাংকিং

১। বিরাট কোহলি (ভারত)- ৯১১ (রেটিং পয়েন্ট)
২। জো রুট (ইংল্যান্ড)- ৮১৮ (রেটিং পয়েন্ট)
৩। বাবর আজম (পাকিস্তান)- ৮০৮ (রেটিং পয়েন্ট)
৪। রোহিত শর্মা (ভারত)- ৮০৬ (রেটিং পয়েন্ট)
৫। ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া)- ৮০৩ (রেটিং পয়েন্ট)
০৬। রস টেইলর (নিউজিল্যান্ড)- ৭৮৫ (রেটিং পয়েন্ট)
০৭। কুইন্টন ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা)- ৭৮৩ (রেটিং পয়েন্ট)
০৮। ফাফ ডু প্লেসিস (দক্ষিণ আফ্রিকা)- ৭৮২ (রেটিং পয়েন্ট)
০৯। কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)- ৭৭৮ (রেটিং পয়েন্ট)
১০। শিখর খাওয়ান (ভারত)- ৭৭০(রেটিং পয়েন্ট)