মুস্তাফিজের বিদেশি লিগ খেলায় নিষেধাজ্ঞা

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে তার আর্বিভাব জ্বলজ্বলে এক তারা হয়ে। শুকতারার মতো। সন্ধ্যা হলেই যে তারা অন্য সবার থেকে বেশি জ্বলজ্বল করে জ্বলে। বাংলাদেশের দারুণ কিছু জয়ের সাক্ষী এই কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ। এরপর ভারতের টি২০ লিগ ‘ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে’ (আইপিএল) হায়দরাবাদের হয়ে চোখ ধাঁধাঁনো পারফর্ম ছিল ফিজের। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতে সেই শুকতারার আলো তার ইনজুরি শুষে নিতে শুরু করল।

আর তার শুরুটা আইপিএল এবং পরে ইংলিশ লিগ সাক্সেসে খেলে। ওই যে ইনজুরিতে পড়লেন আর পুরনো মুস্তাফিজ হয়ে ফিরতে পারলেন না। সর্বশেষ আইপিএল থেকে বয়ে আনা ইনজুরির কারণে আফগান সিরিজ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ মিস করেছেন তিনি। আর তাই ভিন দেশি লিগ থেকে ইনজুরি বয়ে আনা ফিজের বিদেশি লিগ খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমি তাকে বলেছি আগামী দু’বছর বিদেশি লিগে সে খেলতে পারবে না। বিষয়টি এভাবে চলতে পারে না। সে বিদেশি লিগ খেলে ইনজুরি বাঁধিয়ে আনবে আর জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারবে না। এটা স্রেফ গ্রহণযোগ্য নয়। সে বার বার ইনজুরি বয়ে নিয়ে আসবে আর বোর্ডের অধীনে তার ইনজুরি থেকে সেরে ওঠার জন্য পুনঃবাসন নেবে এটা হতে পারে না।’

মুস্তাফিজ ২০১৬ সালে তার ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ইংল্যান্ডের লিগ ব্লাস্টে খেলার সময় ইনজুরি পড়েন। এরপর ২০১৭ সালে আবার তিনি গোড়ালির চোটে পড়েন। ওই চোটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর মিস করেন তিনি। এরপর বিপিএলের শুরুতে খেলতে পারেননি ফিজ।

সর্বশেষ চোটে পড়েন আইপিএলে মুম্বাইয়ের হয়ে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলার সময়। ওই ইনজুরির কারণে মুস্তাফিজের জন্য শেষ সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করা হয়েছে। কিন্তু দলের সঙ্গে যেতে পারেননি ফিজ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি২০ সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হারে বা্ংলাদেশ। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও ছিলেন না ফিজ। তবে ক্যারিবিওদের বিপক্ষে একদিনের ম্যাচে আছেন মুস্তাফিজ।