রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন ও সন্ত্রাস দমনে পাশে থাকবে ভারত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন, সন্ত্রাস দমন ও যে কোন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত। রবিবার সচিবালয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন।

দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের ষষ্ঠ বৈঠকে যৌথভাবে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। সকাল সাড়ে ১০টায় বৈঠকটি শুরু হয়ে চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। বৈঠক শুরুর আগে রাজনাথ সিংকে ‘গার্ড অব অনার’ প্রদান করা হয়।

বৈঠকে ৯ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। আর বাংলাদেশের ১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বৈঠকে আঞ্চলিক নিরাপত্তা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড দমনে সহযোগিতা এবং ভ্রমণ সংক্রান্ত বিষয় গুরুত্ব পায়।

বৈঠকের বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে আমাদের কথা হচ্ছে। আমরা বলেছি রোহিঙ্গারা আমাদের জন্য প্রব্লেম (সমস্যা) হয়ে আছে। আমরা যে উদারতা দেখিয়েছি এটাকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী অ্যাপ্রিশিয়েট (তারিফ) করেছেন। রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন, সন্ত্রাস দমনে তারা সহযোগিতা করবেন। রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু যারা এসেছেন, তাদের পুনর্বাসন কীভাবে করা যায় সে বিষয়ে সহযোগিতা করবেন।’

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং ঢাকায় আসেন। বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলা রাজনাথ সিংকে স্বাগত জানান।