সামিট, জিই ও মিৎসুবিশি ২৪০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র করবে

নিউজ ডেস্ক:   সামিট, জিই করপোরেশন ও মিৎসুবিশি করপোরেশন লিমিটেডের মধ্যে ২৪০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন চারটি বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সই হবে। তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসভিত্তিক (এলএনজি) ৬০০ মেগাওয়াটের চার বিদ্যুৎকেন্দ্র, এলএনজি টার্মিনাল এবং তেল টার্মিনাল স্থাপনে বিনিয়োগ হচ্ছে ২৪ হাজার কোটি টাকা।

বুধবার রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে সমঝোতা স্মারকটি সই হবে।

এর আগে গত মে মাসে সিঙ্গাপুরে মিৎসুবিশি করপোরেশন ও সামিটের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়। চার বিদ্যুৎকেন্দ্র হবে পরিবেশবান্ধব।

এই বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরির পাশাপাশি সামিট ও মিৎসুবিশি ৩ লাখ ৮০ হাজার ঘন মিটারের দুটি তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) টার্মিনাল স্থাপন করবে। দুটি এলএনজি টার্মিনালের পাশাপাশি প্রকল্পে এক লাখ মেট্রিক টনের তেলের টার্মিনাল এবং ৩০০ মেগাওয়াটের হেভি ফুয়েল অয়েলভিত্তিক টার্মিনাল স্থাপন হবে।

২৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পটিতে ৫৫ শতাংশের বেশি বিনিয়োগ সামিটের, ২৫ শতাংশ মিৎসুবিশি এবং ২০ শতাংশ জিই করপোরেশনের। আগামী বছর থেকে এ প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে। ২০২৩ সালে এসব কেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে।

কাল সমঝোতা স্মারকে সই করবেন সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান, জিই করপোরেশনের পাওয়ার অ্যান্ড এনার্জি শাখার প্রেসিডেন্ট রাসেল স্টোকস এবং মিৎসুবিশি করপোরেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তেতসুজি নাকাগাওয়া। স্মারক সই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জ্বালানিবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরীর, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। বিসামিট, জ্ঞপ্তি।